যশোরে পুলিশের টাকায় ‘মাদক বিক্রেতাদের পুনর্বাসন ও মাদকাসক্ত চিকিৎসা সহায়তা তহবিল’ গঠন

0
220

নিজস্ব প্রতিবেদক   যশোরে পুলিশের বেতনের টাকায় ‘মাদক বিক্রেতাদের পুনর্বাসন ও মাদকাসক্ত চিকিৎসা সহায়তা তহবিল’ গঠন করা হয়েছে। জেলার ১ হাজার ৮৫০ জন পুলিশ সদস্যর এক দিনের বেতনের টাকা এই তহবিলে দেওয়া হয়েছে। এই তহবিলে ১০ লাক্ষাধিক টাকা জমা হয়েছে। এই টাকা দরিদ্র ও অসহায় মাদকাসক্ত ব্যক্তিদের সুস্থ ও স্বাভাবিক জীবনে ফিরিয়ে আনার জন্য চিকিৎসা সহায়তা এবং মাদক বিক্রেতাদের পুনর্বাসনের সহায়তা প্রদান করা হবে। বুধবার দুপুরে যশোর প্রেসক্লাবে এই সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান।

তিনি বলেন, যশোর জেলা পুলিশের এ মহতী উদ্যোগের সাথে থাকবে যশোর প্রেসক্লাব। প্রেসক্লাবের সভাপতি ও সেক্রেটারীসহ সিনিয়র সাংবাদিকদের সমন্বয়ে গঠিত কমিটি পুনর্বাসন ও চিকিৎসা সহায়তা প্রদানের জন্য মাদক বিক্রেতা এবং মাদকাসক্ত ব্যক্তিদেরকে চিহ্নিত করা হবে। সাংবাদিকদের মতামতের ভিত্তিতে তহবিলের কার্যক্রম পরিচালিত হবে। যাতে এ কার্যক্রমের স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা শতভাগ নিশ্চিত হয়।
তিনি বলেন, ‘মাদক ও জঙ্গীর প্রতিকার, বাংলাদেশ পুলিশের অঙ্গীকার’ এই শ্লোগানকে সামনে রেখে মাদক ও জঙ্গীমুক্ত বাংলাদেশ গড়ার দৃঢ় প্রত্যয় নিয়ে বাংলাদেশ পুলিশের অন্যান্য ইউনিটের ন্যায় যশোর জেলা পুলিশ পেশাদারিত্বের সাথে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। মাদক দ্রব্যের অপব্যবহার একটি ভয়াবহ সামাজিক সমস্যা। মাদকের করাল গ্রাসে তরুন ও যুব সমাজ আজ দিশেহারা এবং মাদক দ্রব্যের অপব্যবহারে দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে। একজন মাদকাসক্ত ব্যক্তি পরিবার, সমাজ ও রাষ্ট্রের জন্য বোঝা স্বরূপ। মাদক বিক্রেতা ও মাদকাসক্ত ব্যক্তিরা বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকান্ডে জড়িয়ে পড়ায় আইন-শৃংখলা পরিস্থিতির উপর মারাত্মক বিরূপ প্রভাব পড়ে। আর এরই ধারাবাহিকতায় যশোর পুলিশের এই উদ্যোগ।
সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন প্রেসক্লাব সভাপতি জাহিদ হাসান টুকুন, সিনিয়র সাংবাদিক ফখরে আলম, মবিনুল ইসলাম মবিন, প্রেসক্লাব সম্পাদক এস এম তৌহিদুর রহমান, সহ-সভাপতি আনোয়ারুল কবীর নান্টু, সাবেক সভাপতি মিজানুর রহমান তোতা প্রমুখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here