যশোরে পুলিশের সাব-ইন্সপেক্টর কর্তৃক স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগ

0
302

বিশেষ প্রতিনিধি: যশোরে সিআইডি পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) আজিজুল ইসলাম সবুজের বিরুদ্ধে তার স্ত্রী মরিয়ন ওরফে পারুল (৩০)কে হত্যা করে লাশ ঝুলিয়ে রাখার অভিযোগ উঠেছে। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে যশোর শহরতলীর ধর্মতলা বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।
নিহত পারুলের মামা মাসুদুর রহমান ও খালাতো ভাই রবিউল ইসলাম সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ করেন, পারুলের বাড়ি যশোর সদর উপজেলার রামনগর ইউনিয়নের চৌঘাটা গ্রামে। তাদের দাম্পত্য জীবণে দুইটি সন্তান আছে। এসআই আজিজুল ইসলাম যশোরে কর্মরতকালীন ইয়াবা ট্যাবলেট এবং ফেনসিডিলে আসক্ত হয়ে পড়েন। এছাড়া ঘন্টার পর ঘন্টা মোবাইল ফোনে অন্য নারীদের সাথে কথা বলতো। এমনকি পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েন আজিজুল হক। এই নিয়ে তাদের স্বামী স্ত্রীর মধ্যে মনমালীন্য চলছিল। এছাড়া পারুলের পিতা যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের পাশে পারুলের নামে ১৮ লাখ টাকা ব্যায় করে কিছু জমি কিনে দিয়েছেন। ওই জমি আজিজুল তার নিজের নামে লিখে দেয়ার জন্য পারুলকে চাপ দিতো। কিন্তু পারুল ওই জমি কোন ভাবে আজিজুলকে লিখে দিতে রাজি না। এই নিয়ে দুইজনের মধ্যে ব্যাপক ঝগড়া ও তর্কবিতর্ক বাধেঁ। আজিজুল প্রায় পারুলকে মানষিক ও শারীরিক নির্যাতন চালাতো। আভিযোগে আরো বলেন, সপ্তাহ খানেক আগে আজিজুল ঢাকা থেকে ছুটি নিয়ে বাড়িতে আসে। দুইজনের মধ্যে ব্যাপক বাকবিতন্ডা হয়। গত বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টায় ছেলে প্রান্ত এবং মেয়ে লাবিবা স্কুলে ছিল। এই সময় স্বামীস্ত্রীর মধ্যে কলহের এক পর্যায় আজিজুল ঘরের ভেতর থেকে দরজা দিয়ে ব্যাপক মারপিট করে পারুলকে। পরে তার গলাটিপে শ্বাসরোধে হত্যা করে। ঘটনাটি ভিন্ন খাতে নেয়ার জন্য আজিজুল তড়িঘড়ি করে মরদেহ ঘরের ভেতর ফ্যানের সাথে ঝুলিয়ে রেখে জানালা ভেঙ্গে পালিয়ে যায়। দুপুরে তার ছেলে প্রান্ত স্কুল থেকে বাড়ি ফিরে দেখে ঘরের দরজা বন্ধ। সে জানালা দিয়ে দেখে তার মায়ের লাশ ফ্যানের সাথে ঝুলছে। তার চিৎকারে আশেপাশের লোকজন এগিয়ে এসে লাশ উদ্ধার করে যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে নিয়ে আসে। সংবাদ পেয়ে তারাও হাসপাতালে গিয়ে পারুলের মরদেহ দেখতে পান। এ ব্যাপারে তারা থানায় হত্যা মামলা করবেন বলে জানিয়েছেন। হাসপাতলের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক ডা. আব্দুল্লাহ আল মামুন জানিয়েছেন, হাসপাতালে নেয়ার আগেই তার মৃত্যু হয়েছে। যশোর কোতয়ালি থানার ওসি একেএম আজমল হুদা সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, একজন গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছে বলে জানতে পেরেছি। এর বেশি কিছু বলতে পারবো না। লাশের ময়না তদন্ত সম্পন্ন হয়েছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত থানায় সাধারণ ডাইরীভূক্ত করা হয়েছে।#

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here