যশোরে পৃথক সড়ক দূর্ঘটনায় ২ শিশু নিহত, আহত ৭

0
74

নিজস্ব প্রতিবেদক : যশোরে পৃথক চারটি সড়ক দূর্ঘটনায় ২ শিশু নিহত ও ৭ জন আহত হয়েছে। নিহতরা হচ্ছে যশোর সদরের দিহি গ্রামের সুমন হোসেনের ছেলে শিহাব হোসেন (১০) ও মনিরামপুর উপজেলার রাজগঞ্জের জালাল গাজীর মেয়ে শাকিলা খাতুন (৭)।
আহতদের মধ্যে ৬ জন যশোর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন, গুরুতর আহত এক শিশুটিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে উন্নত চিকিৎসার জন্যে প্রেরণ করা হয়েছে। মনিরামপুর উপজেলার ঝাঁপা বাওড়ে ছুটির দিনে মেয়েকে ঘুরতে নিয়ে গিয়ে মর্মান্তিক ঘটনা ঘটেছে। শুক্রবার দুপুর দেড়টার সময় মোটর সাইকেলের সাথে পিকআপের সংঘর্ষের মেয়েকে হারিয়েছে পিতা। নিহত শিশুটির নাম শাকিলা খাতুন, তৃতীয় শ্রেণী থেকে সদ্য চতুর্থ শ্রেণীতে উঠেছে। নিহত শিশুর পিতা জালাল গাজীও আহত অবস্থায় যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি। জালাল গাজী খুলনা জেলার পাইকগাছা উপজেলার সোনাতনকাটি গ্রামের বাসিন্দা। তিনি মনিরামপুরের রাজগঞ্জে ইটভাটায় কাজ করেন, সেখানেই অস্থায়ী ভাবে থাকেন।
এদিকে দুপুর আড়াইটার সময় যশোর-ঝিনাহদাহ মহাসড়কের শানতলা বাজারে ট্রাকের ধাক্কায় সাইকেল আরোহী শিশু নিহত হয়েছে। নিহত শিশুটির নাম শিহাব হোসেন। শিশুটি যশোর সদরের দিহি গ্রামের সুমন হোসেনের ছেলে। শিহাব হোসেন শানতলা বাজারের তালেব ফার্নিচারের কর্মচারী হিসেবে কর্মরত ছিল, দুপুরে বাড়িতে সাইকেলে খেতে যাওয়ার সময় এ দূর্ঘটনা ঘটে।
শুক্রবার বিকেল সাড়ে পাঁচটায় যশোর-খুলনা মহাসড়কের রুপদিয়ায় গড়াই পরিবহনের একটি বাস ধাক্কা দিলে ইজিবাইকের পাঁচ আরোহী আহত হয়। এর মধ্যে একজনের অবস্থা গুরুতর। পাঁচ আরোহী’র মধ্যে আরিফুল ইসলাম (৫৭) গুরুতর আহত অবস্থায় যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। তিনি অভয়নগরের রাজঘাট এলাকার আব্দুল মান্নানের ছেলে। এ দূর্ঘটনায় আরিফুল ইসলামের ছেলে ইলিয়াস হোসেনও আহত অবস্থায় যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হয়। ইজিবাইকের আহত অন্য তিন যাত্রী হলেন- যশোর সদরের পদ্মবিলা গ্রামের মফিজুর ও তার ভাই আক্তার হোসেন। অন্য আহত যাত্রী অভয়নগর উপজেলার রাজঘাট এলাকার শহিদুল ইসলামের স্ত্রী সোনিয়া খাতুন।
একই দিন বিকাল সাড়ে পাঁচটার সময় যশোরের চাঁচড়া চেকপোস্ট এলাকায় পিতার সাথে রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে থাকা অবস্থায় ট্রাক ধাক্কা দিলে গুরুতর আহত হয় শিশু সোহানা খাতুন। আশঙ্কাজনক অবস্থায় শিশুটিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে উন্নত চিকিৎসার জন্যে প্রেরণ করা হয়েছে সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলার শেখপুর গ্রামের মোসলেম হোসেনের মেয়ে। চাঁচড়া চেকপোস্টে গাড়ি পরিবর্তন করে ঝিনাইদাহের কালিগঞ্জে যাওয়ার জন্যে রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে ছিল। মোসলেম হোসেন ইটভাটায় কাজ করার উদ্দেশ্যে কালিগঞ্জে যাচ্ছিলেন।
নিহত দুই শিশু শাকিলা খাতুন ও শিহাব হোসেনের লাশ যশোর সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়। দূর্ঘটনার জন্যে দায়ী কোন গাড়ীকে চিহিৃত বা আটক করা সম্ভব হয়নি।#