যশোরে প্রকাশ্যে ইজিবাইকের যাত্রী সেজে ৫০ হাজার টাকা লুট

0
289

বিশেষ প্রতিনিধি : প্রকাশ্যে ইজিবাইকের যাত্রী সেজে ব্যাগ থেকে নগদ ৫০ হাজার টাকা নিয়ে পালানোর সময় চক্রের এক সদস্য সুজনকে ধরে পুলিশে দিলেও পুলিশ প্রকৃত ঘটনাকে পাশ কাটাচ্ছে। গ্রেফতারকৃত সুজনকে হেরোইনসহ গ্রেফতার দেখিয়ে মামলা দিয়েছে।
যশোর সদর উপজেলার সুজলপুর মাঠপাড়ার মৃত আব্দুল বারেকের ছেলে সেলিম হাসান জানিয়েছেন, তিনি ইজিবাইক চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করেন। বৃহস্পতিবার সকালে তিনি তার স্ত্রী সালেহা খাতুন ওরফে সালমাকে নিয়ে যশোর প্রধান ডাকা ঘরে টাকা তুলতে আসেন। বেলা সাড়ে ১১ টায় ডাক ঘর হতে নগদ ৫০ হাজার টাকা তুলে স্ত্রী সালমাকে ইজিবাইকে নিয়ে বাড়ির উদ্দেশ্যে রওয়ানা হন। ইজিবাইকটি ঈদগাহর সামনে মুজিব সড়কে পৌছালে হঠাৎ দুই দিক হতে ৫জন ছিনতাইকারী যাত্রীবেশে উঠে পড়েন। ইজি বাইকটি বেলা পৌনে ১২ টায় এসপি অফিসের সামনে দিয়ে যাওয়ার প্রাক্কালে হঠাৎ সালমার কাছে থাকা ব্যাগ কেটে ৫০ হাজার টাকা নিয়ে নেয়। টাকা খোজাখুজির এক পর্যায় চক্রের সকল সদস্য ইজিবাইক থামিয়ে পালাতে থাকে। সালমার স্বামী ইজিবাইক চালক সেলিম হাসান দৌড়ে চক্রের সদস্য শহরের বারান্দীপাড়া মাঠপাড়ার ইদ্রিস আলীর ছেলে সুজনকে ধাওয়ার এক পর্যায় ধরে ফেলে। পরে তাকে ধর্মতলায় নিয়ে যায়। সেখানে সুজনকে গণধোলাই দিলে সে চক্রের সাথে ঝুমঝুম পুরের ঝন্টুসহ ৫ জনের কথা উল্লেখ করেছেন। বৃহস্পতিবার বিকেলে সুজনকে কোতয়ালি থানার এএসআই মিলনের হোসেনের কাছে সোপর্দ করেন। এদিকে নগদ উক্ত টাকা খোয়া যাওয়ার বিষয়টি ইজিবাইক চালক সেলিম হাসান বাদী হয়ে কোতয়ালি থানায় সুজনসহ অজ্ঞাতনামা কয়েকজন উল্লেখ করে এজাহার দায়ের করেন। এদিকে,সুজনকে এএসআই মিলন হোসেন ৫০ গ্রাম হেরোইনসহ গ্রেফতার দেখিয়ে মাদক আইকে মামলা দায়ের করেন। সেলিম হাসানের দায়েরকরা এজাহার অজ্ঞাত কারনে নথিভূক্ত করা হয়নি। প্রকৃত ঘটনাকে পাশ কাটিয়ে সুজনের রিরুদ্ধে হেরোইন উদ্ধার দেখিয়ে মামলা পুলিশের সফলতার চিত্র। প্রকাশ্যে টাকা খোয়া যাওয়া পুলিশের ব্যর্থতার কারনে মামলা না করে পাশ কাটিয়ে যাওয়া হচ্ছে কি?

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here