যশোরে ফের অজ্ঞানপার্টির কবলে দু’ব্যাক্তি

0
213

নিজস্ব প্রতিবেদক : যশোরে ফের অজ্ঞানপার্টির কবলে দু’ব্যাক্তি অচেতন আবস্হায় যশোরের নূতন বাসটার্মিনাল এলাকা থেকে স্হানিয় লোকজন উদ্ধার করে ৩০ মার্চ বৃহস্পতিবার রাত ৮টায় যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেছে।তারা হলেন নড়াইল লুটিয়া গ্রামের গোপাল ঘোষের ছেলে মার্কেন্টাইল ব্যাংকের এসএমই বিভাগের কর্মি প্রিটন ঘোষ(৩৪)ও নড়াইল সদর উপজেলার রঘুনাথপুর গ্রামের রফিক খন্দকারের ছেলে রেন্টে কার চালক করিম খন্দকার(৩০)।
হাসপাতাল ও বহনকারী সূত্রে জানাযায়,বৃহস্পতিবার সন্ধায় কালিগঞ্জ থেকে ছেড়ে আসা রুপসা পরিবহনের একটি যাত্রীবাহি বাস যশোর নুতন টার্মিনালে দাড়ায়।এসময় প্রিটন ও করিমকে অচেতন অবস্হায় স্হানিয় লোকজন দেখতে পায়।স্হানিয়রা তাদের উদ্ধার করে রাত ৮টায় যশোর ২৫০শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে।হাসপাতা জরুরী বিভাগে ডাক্তার কাজল মল্লিক জানান তাদেরকে চিকিৎসা দিয়ে ওয়ার্ডে পাঠানো হয়েছে তবে ২৪ঘন্টা পার নাহলে কিছুই বলা সম্ভব না।

উল্লেখ্য গত ২৬জানুয়ারী থেকে ফেব্রুয়ারী মাসে অজ্ঞানপার্টির কবলে মহিলাসহ ৫ জন যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিল। ,তারা হলেন খুলনা থেকে ছেড়ে আসা সুন্দরবন এক্সপ্রেস ট্রেনে এক অজ্ঞাত পুরুষ (৫৫)। যশোর শহরের মনিহার সিনেমা হল এলাকা থেকে অজ্ঞাত পুরুষ (৩৫। খুলনা সোনাডাঙ্গা এলাকার পিকে মটর্স মালিক হুমায়ুন (৫০)। এরপর যশোর মনিরামপুর উপজেলার বাসুদেবপুর গ্রামের সাধন মালাকারের স্ত্রী গীতারাণী (৭০) ও খুলনা থেকে আসা পরিবহনের যাত্রী অজ্ঞাত পুরুষ (৩৫) কে। শহরের মনিহার সিনেমাহল এলাকা থেকে অচেতন অবস্থায় যশোর কোতয়ালী থানা পুলিশ উদ্ধার করে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here