যশোরে বাড়িওয়ালা কর্তৃক ভাড়াটিয়া শিক্ষার্থীকে যৌন নির্যাতনের অভিযোগে মামল ॥ গ্রেফতার

0
311

বিশেষ প্রতিনিধি : বাড়িওয়ালা কর্তৃক ভাড়াটিয়া কলেজ পড়–য়া শিক্ষার্থীকে জোর পূর্বক যৌন নির্যাতনের অভিযোগে পুলিশ মোঃ সেলিম পারভেজ নামে এক লম্পট বাড়িওয়ালাকে গ্রেফতার করেছে। সে যশোর শহরের শাহ আব্দুল করিম রোড় খড়কী বাসা নং ১২২৮ এর আব্দুল গফুরের ছেলে। এ ঘটনায় কোতয়ালি মডেল থানায় শুক্রবার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।
চুয়াডাঙ্গা জেলার জীবননগর উপজেলা এলাকার এক গ্রামের বাসিন্দা কলেজ ছাত্রী (২৩) যশোর মহিলা কলেজে অনার্স তৃতীয় বর্ষে পড়াশুনা করে। লেখাপড়া করার সুবাদে উক্ত সেলিম পারভেজ এর ৪র্থ তলার ১০ নং রুমে উক্ত শিক্ষার্থী ভাড়া নিয়ে থাকতেন। ১৩ ফেব্রুয়ারী বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২ টায় বাড়িওয়ালা সেলিম পারভেজ তার মোবাইল ফোনে ভাড়াটিয়া ওই শিক্ষার্থীর মোবাইল ফোনের ফোন করে ভাড়ার বিষয় নিয়ে আলাপ করার জন্য ডাকে। সহজ সরল বিশ্বাসের উক্ত শিক্ষার্থী বাড়িওয়ালার নীচ তলার আসে। সেলিম পারভেজ এর ঘরে বসে কথা বার্তা বলার এক পর্যায় রাত আনুমানিক পৌনে ১ টায় সেলিম পারভেজ উক্ত শিক্ষার্থীকে কু-প্রস্তাব দেয়। এক পর্যায় শিক্ষার্থীর ষ্পর্শ কাতর স্থানে হাত দিয়ে যৌন নির্যাতন করে। শিক্ষার্থী চিৎকার দিলে উক্ত ভবনে থাকা অন্যান্য ভাড়াটিয়া শিক্ষার্থীরা দ্রুত আসে। তাছাড়া,আশপাশের ভাড়াটিয়া ছেলে শিক্ষার্থী ও স্থানীয় লোকজন এগিয়ে আসলে সেলিম পারভেজ শিক্ষার্থীকে ছেড়ে দেয়। স্থানীয় লোকজন সেলিম পারভেজকে আটক করে। পরে কোতয়ালি মডেল থানা থেকে পুলিশ গিয়ে সেলিম পারভেজনকে গ্রেফতার করে। থানায় নিয়ে আসে। সাথে উক্ত শিক্ষার্থী থানায় ওই রাতে আসে। শুক্রবার সকালে উক্ত শিক্ষার্থী সেলিম পারভেজ এর বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করলে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা লম্পট সেলিম পারভেজকে আদালতে সোপর্দ করে।