যশোরে মাদ্রাস ছাত্রী কিশোরী পপি অপহরণের ঘটনায় মামলা

0
419

বিশেষ প্রতিনিধি : মাদ্রাসা ছাত্রী ফতেমা খাতুন ওরফে পপি (১৫) অপহরণের ঘটনায় কোতয়ালি মডেল থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলায় দু’জনকে আসামী করা হয়েছে। এরা হচ্ছে,যশোরের মনিরামপুর উপজেলার ইত্যা গ্রামের মোঃ সিরাজ ঘটনের ছেলে বকুল হোসেন,একই উপজেলার রাজবাড়ীয়া পূর্ব পাড়ার সিদ্দিক মিয়ার ছেলে নুরনবীসহ অজ্ঞাতনামা ২/৩জন।
যশোরের মনিরামপুর উপজেলার কাশিপুর গ্রামের রেজাউল ইসলামের মেয়ে ফতেমা খাতুন পপি নিজ গ্রামের দাখিল মাদ্রাসায় দশম শ্রেনীতে লেখা পড়ে করে। মাদ্রাসায় আসা যাওয়ার প্রাক্কালে বকুল হোসেন প্রেমের ও বিয়ের প্রস্তাব দিতো। পপি তার মামা কোতয়ালি থানাধীন তেঁতুলিয়া গ্রামে মামা নজরুল ইসলাম তার খালাতো ভাই আল মামুন খালাতো বোন মুন্নি খাতুনের সাথে গত ১৭ এপ্রিল কোতয়ালি থানাধীন রুদ্রপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে বৈশাখী মেলায় বেড়াতে যায়। সেখান থেকে রাতে বাড়িতে ফেরার সময় রুদ্রপুর স্কুলের পিছনে পৌছালে বকুল হোসেন,নুরনবীসহ অজ্ঞাতনামা ২/৩জন জোর পূর্বক অপহরণ করে গাড়ীতে তুলে নিয়ে যায়। পপি চিৎকার দিলে মামা,খালাতো ভাই ও খালাতো বোন রক্ষা করার চেষ্টা চালিয়ে ব্যর্থ হয়। পরবর্তীতে কিশোরী পপিকে বকুল হোসেন তার বোন ও ভগ্নি পতি জাহিদের সহায়তায় তাদের বাড়িতে আটক করে রাখে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত কোতয়ালি থানা পুলিশ অপহৃতা কিশোরী পপিকে উদ্ধার করতে পারেনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here