যশোরে সন্ত্রাসীদের গুলিতে ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি নিহত

0
102

নিজস্ব প্রতিবেদক, যশোর : যশোরের মনিরামপুরে দুর্বৃত্তদের গুলিতে উদয় শংকর বিশ্বাস (৪৫) নামে এক যুবলীগ নেতা খুন হয়েছেন। সোমবার (১৬ অক্টোবর) সকালে বাড়ির সামনে দুর্বৃত্তরা তাকে গুলি করে পালিয়ে যায়। খুলনা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে নেওয়ার পথে তিনি মারা যান।

উদয় শংকর উপজেলার পাঁচাকড়ি গ্রামের রঞ্জিত বিশ্বাসের ছেলে। তিনি নেহালপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি ও নেহালপুর স্কুল অ্যান্ড কলেজের সংস্কৃত বিষয়ের প্রভাষক। এছাড়া উদয় বিশ্বাস পাঁচাকড়ি টেকেরঘাট মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের পরিচালনা পর্ষদের সভাপতির দায়িত্ব ছিলেন।

নেহালপুর স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ চঞ্চল ভট্টাচার্য বলেন, সকালে টেকেরঘাট বাজার থেকে বাজার করে নিজের মোটরসাইকেল চালিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন উদয় শংকর বিশ্বাস। তিনি বাড়ির কাছাকাছি পৌঁছালে দুর্বৃত্তরা তাকে গুলি করে। এতে তিনি মোটরসাইকেল থেকে পড়ে যান। স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে খুলনা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে নেওয়ার পথে তিনি মারা যান।
খবর পেয়ে যশোরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সাইফুল ইসলাম, মনিরামপুর সদর সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার আশেক সুজা মামুন ও মনিরামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

মনিরামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান বলেন, কী কারণে কলেজ শিক্ষককে হত্যা করা হয়েছে সেটা অনুসন্ধানে পুলিশ কাজ করছে। লাশ খুলনা জেনারেল হাসপাতালে রয়েছে।

স্থানীয়রা বলছেন, সকালে পাঁচাকড়ি বৈকালি মোড়ে একটি চায়ের দোকানে দুজন যুবক মোটরসাইকেল চালিয়ে এসে চা পান করেন। তাদের একজনের মাথায় হেলমেট পরিহিত ছিল। দোকানের লোকজন পরিচয় জানতে চাইলে তারা খুলনার ফুলতলা এলাকা থেকে এসেছেন বলে জানান। অপরিচিত ঐ দুই যুবকই যুবলীগ নেতাকে গুলি করে পালিয়ে গেছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, প্রথমে ধারণা করা হয়েছে মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণজনিত কারণে মোটরসাইকেল থেকে পড়ে গেছেন উদয় শংকর। অ্যাম্বুলেন্সে ওঠানোর পর তার দেহের ডানপাশে পেছনে রক্ত দেখা গেছে।টেকেরঘাট মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ে সম্প্রতি তিন কর্মচারী নিয়োগ হয়েছে। এ সংক্রান্ত বিরোধে যুবলীগ নেতা উদয় শংকর খুন হতে পারেন, এমনটি ধারণা স্থানীয়দের।

ইত্তেফাক/কেকে