যশোরে স্টুডেন্ট ভিসায় মালয়েশিয়ায় পাঠানোর নামে প্রতারণার অভিযোগ

0
266

বিশেষ প্রতিনিধি : স্টুডেন্ট ভিসায় মালয়েশিয়ায় নিয়ে যাওয়ার প্রলোভনে যশোরের গ্লোবাল ভিশন এডুকেশন কনসালটেন্সি নামে একটি প্রতিষ্ঠান শিক্ষার্থীরদের সাথে প্রতারণা চালিয়ে যাওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ভুক্তভোগী এক শিক্ষার্থীর অভিভাবক সোমবার দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) যশোর জেলা সমন্বিত কার্যালয়ে অভিযোগ করেছেন।
শিক্ষার্থীর পিতা কাওছার আহমেদ অভিযোগ উল্লেখ করেন, যশোর কোতোয়ালি থানার পাশে লাবনী ভবনে গ্লোবাল ভিশন এডুকেশন কনসালটেন্সি নামে একটি প্রতিষ্ঠান রয়েছে। যারা মালয়েশিয়ায় স্টুডেন্ট ভিসায় শিক্ষার্থী পাঠায় বলে বিভিন্ন সময় প্রচার করে আসছে। শহরের বেজপাড়ার মেইন রোডের আমীর আহমদ লেনের বাসিন্দা কাওছার আহমদের ছেলে মুরাদ আহম্মেদ চলিত বছর মালয়েশিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির জন্য যোগাযোগ করেন। তিনি সেখানকার বিশ্ববিদ্যালয়ে হসপিটালিটি অ্যান্ড ম্যানেজমেন্টে ভর্তির জন্য তিন লাখ ৪০ হাজার টাকা দেন। এর প্রেক্ষিতে মুরাদ আহম্মেদকে তিন মাসের ভিসা দিয়ে মালয়েশিয়ায় নিয়ে যায় প্রতিষ্ঠানটি। সেখানে পৌঁছে তার কাছে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি ও মেডিকেল বাবদ আরও ৯ হাজার টাকা দাবি করা হয়। দিতে না পারায় তাকে রাস্তায় ছেড়ে দেয়া হয়।
পরে মুরাদ এক বন্ধুর সহযোগিতায় একটি হোস্টেলে উঠে বিশ্ববিদ্যালয়ে যোগাযোগ করেন। একই সাথে দেশে তার পিতা কাওছার আহমেদকে বিষয়টি জানান। তখন মুরাদের পিতা গ্লোবাল ভিশন এডুকেশন কনসালটেন্সিতে যান। এরপর মুরাদের এক বছরের ভিসা করে দেয়া হলেও বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তির কাগজ ও ভর্তি কার্ড দেয়া হয়নি। বাধ্য হয়ে মুরাদ দেশে ফিরে আসেন এবং তার পিতা টাকা ফেরত চেয়ে উকিল নোটিশ দেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে ২৮ মে গ্লোবাল ভিশন এডুকেশন কনসালটেন্সির সিইও কানিজ ফাতিমা লিজা ভুক্তভোগীকে ধর্য্য ধরতে বলেন।এদিকে প্রতারণার বিচার চেয়ে সোমবার দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) যশোর জেলা সমন্বিত কার্যালয়ে অভিযোগ করেছেন।এ বিষয়ে জানতে চাইলে দুদুকের যশোর কার্যালয়ের উপ পরিচালক জাহিদুল ইসলাম জানান, অভিযোগ পেয়েছি। প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here