যশোরে স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর ফাঁসি

0
59

নিজস্ব প্রতিবেদক : যশোরে স্ত্রীকে শ্বাসরোধে হত্যার দায়ে মনিরুল ইসলাম নামে এক ব্যক্তির ফাঁসি ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক ইখতিয়ারুল ইসলাম মল্লিক এ রায় দিয়েছেন। দণ্ডিত মনিরুল ইসলাম যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলার ভাতুড়িয়া গ্রামের মৃত আবদুল খালেকের ছেলে। পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) এম ইদ্রিস আলী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০০২ সালে যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলার হাবুল্লা গ্রামের আবদুর রশিদের মেয়ে তারা বেগমের সঙ্গে একই উপজেলার ভাতুড়িয়া গ্রামের মৃত আবদুল খালেকের ছেলে মনিরুল ইসলামের বিয়ে হয়। তাদের দুটি ছেলে ও মেয়ে আছে। বিয়ের পর থেকে মনিরুল তার স্ত্রী তারা বেগমকে মারপিট করতেন। ২০১২ সালের ৪ অক্টোবর তারা বেগমের মুখে গামছা ও বালিশ চাপা দিয়ে শ্বাসরোধে হত্যা করে। এরপর বাড়ির পিছনে বাগানে লাশ মাটি চাপা দেয়। ওই বছরের ৮ অক্টোবর নিহতের মা তার মেয়ের সন্ধান করতে গিয়ে লাশের সন্ধান পায়। ওই সময় পুলিশকে অবহিত করা হয়। পরের দিন সকালে (৯ অক্টোবর) ডোমের সহায়তায় তারা বেগমের অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় নিহতের মা সবুরা খাতুন বাঘারপাড়া থানায় মনিরুল ইসলামের নামে হত্যা মামলা দায়ের করেন। ২০১৪ সালের ২৯ জানুয়ারি মনিরুর ইসলামকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দেয়া হয়। দীর্ঘ বিচার প্রক্রিয়া শেষে বৃহস্পতিবার যশোরের সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক ইখতিয়ারুল ইসলাম মল্লিক এক রায়ে মনিরুল ইসলামের ফাঁসির আদেশ ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন।