যশোরে স্বামী হত্যা চেষ্টায় স্ত্রী গ্রেফতার

0
138

নিজস্ব প্রতিবেদক : অবাধ্য স্ত্রীকে ফিরে আনার চেষ্টার এক পর্যায় দোকান হতে বাড়িতে গিয়ে খাবার চাইলে ক্ষিপ্ত হয়ে গরম ডালসহ কড়াই মুখে ছুড়ে মেরে ঝলসে দিয়েছে। এ ঘটনায় উগ্র প্রকৃতির স্ত্রী অঞ্জনা দেবনাথ এর বিরুদ্ধে স্বামী শনিবার দিবাগত গভীর রাতে মামলা করেছে। অঞ্জনা দেবনাথ যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলার শালবরাট গ্রামের বর্তমানে যশোর সদর উপজেলার বিরামপুর হঠাৎ পাড়া গ্রামের জিতু দেবনাথের স্ত্রী ও মনিপদ দেবনাথের মেয়ে। পুলিশ তাকে গ্রেফতার করেছে।
জিতু দেবনাথ স্ত্রীর বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলায় বলেছেন, ২০/২১ বছর পূর্বে হিন্দু ধর্ম মোতাবেক অঞ্জনা দেবনাথের সাথে তার বিয়ে হয়। বিয়ের পর অঞ্জনার দেবনাথের গর্ভে দু’টি ছেলে সন্তান জন্ম গ্রহন করেন। অঞ্জনা প্রায় সময় অবাধ্যভাবে চলাফেরা করে। যার কারনে সংসারে অশান্তি সৃষ্টি হয়। তাকে বোঝানোর চেষ্ট করেও কোন ফল পাইনি। অঞ্জনা দেবনাথ কারণ ও অকারনে স্বামী জিতু দেবনাথের গায়ে হাত তোলে। বিষয়টি অঞ্জনার পিতৃলয় জানালে তারা কোন কর্নপাত করেনি। বরং আরো ইন্দন দেয়। গত ১ জানুয়ারী বেলা দেড়টার সময় জিতু লন্ড্রির দোকান হতে দুপুরের খাবার খাওয়ার জন্য বাড়িতে যেয়ে স্ত্রীর কাছে খাবার চাইলে খাবার না দেওয়ায় কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায় অঞ্জনা স্বামীকে খুন করার উদ্দেশ্যে চুলার উপর থাকা গরম ডাল কড়াই ধরে মুখের উপর ছুড়ে মারে। স্বামী জিতুর মুখে গরম ডাল লেগে ঝলসে যায়। গুরুতর আহত অবস্থায় জিতুকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় কোতয়ালি মডেল থানায় মামলা হওয়ার পর মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা উশৃঙ্খল গৃহবধূ অঞ্জনা দেবনাথকে গ্রেফতার করে রোববার আদালতে সোপর্দ করেছে।