যশোরে ১৪৬ দুর্গা মন্দিরে হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের অনুদান বিতরণ

0
60

নিজস্ব প্রতিবেদক: যশোরে ১৪৬টি শারদীয় দুর্গা মন্দিরে হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের অনুদানের চেক বিতরণ করা হয়েছে। রোববার বিকেলে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে ৮ উপজেলার ১৪৬ টি দুর্গাপ‚জা মন্ডপে ৭ লাখ ৫ হাজার টাকার অনুদানের চেক বিতরণ করা হয়।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য এমপি বলেছেন, বাংলাদেশের সংবিধানের অন্যতম একটি স্তম্ভ হলো ধর্মনিরপেক্ষতা। যে সংবিধানের মাধ্যমে সকল সম্প্রদায়ের মানুষেরা স্বাধীনভাবে তার ধর্মকর্ম ও সকল সুবিধা ভোগ করতে পারছে। বর্তমানে বাংলাদেশ অতীতের অন্য যেকোনো সময়ের চেয়ে অনেক বেশি অসাম্প্রদায়িক ও শান্তিপ‚র্ণ অবস্থানে রয়েছে। অতীতের যেকোনো সময়ের চেয়ে বর্তমানে ধর্মীয় সংখ্যালঘুরা বাংলাদেশে ভালো আছেন। মাঝে মাঝে কেউ কেউ ধর্মের নামে কিছু বিব্রতকর পরিস্থিতি তৈরি করার চেষ্টা করলেও তা বঙ্গবন্ধুকন্যার দ্রæত ও কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের ফলে ব্যর্থ হচ্ছে।
অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক তমিজুল ইসলাম খান। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি পুলিশ সুপার প্রলয় কুমার জোয়ারদার বলেন, যশোরে কোন সাম্প্রদায়িক শক্তি মাথা চড়া দিয়ে উঠেতে পারবে না। আসন্ন দুর্গাপূজা উপলক্ষে যশোরে কেউ বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করলে তাদের কঠোর ভাবে দমন করা হবে। বাঙালির সর্বজনীন উৎসব হচ্ছে দুর্গাপূজা। এবার করোনা কারণে পূজা হবে; তবে উৎসব করতে হবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে। সরকারে স্বাস্থ্যবিধি মেনে এবারও পূজা উদযাপন করতে হবে। দুর্গাপূজাকে কেন্দ্রকরে কোথাও অপ্রতিকর ঘটনা না ঘট, এই লক্ষে জেলা পুলিশের ১৫শ’ পুলিশ মোতায়েন থাকবে। এছাড়া যশোরের সকল মদের বার রাখতে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।
অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন বিশেষ অতিথি হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের ট্রাস্টি সাংবাদিক শ্যামল সরকার, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সাবেক অতিরিক্ত সচিব সন্তোষ কুমার অধিকারী, প্রেস ক্লাব যশোরের সভাপতি জাহিদ হাসান টুকুন, যশোর জেলা প‚জা উদযাপন পরিষদের সভাপতি অসীম কুন্ডু। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্ট যশোরের সহকারী পরিচালক চৈতি মহলদার।