যশোর উপশহরে এনজিও কর্মকর্তা খুনের ঘটনায় তিন জনের নামে স্ত্রীর মামলা ॥ দু’জনকে গ্রেফতার করে রিমান্ডের আবেদন জানিয়ে আদালতে প্রেরণ

0
390

বিশেষ প্রতিনিধি : উপশহর সি ব্লকে এনজিও কর্মকর্তা গোলাম কুদ্দুস ভিকু খুনের ঘটনায় তিন জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা ৫/৭ জনের বিরুদ্ধে কোতয়ালি মডেল থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। রোববার রাতে নিহতর স্ত্রী শারমিন আক্তার লাকি বাদি হয়ে মামলাটি করেন। মামলার আসামী করা হয়েছে, যশোর সদর উপজেলার রাজাপুর গ্রামের মৃত আব্দুল মজিদের ছেলে বাহার,একই উপজেলার ঘুরুলিয়া গ্রামের অবেদ আলী মোল্যার ছেলে মাসুদুর রহমান ও ঝিনাইদহ জেলার মহেশপুর উপজেলার নস্তি(কামারপাড়া) গ্রামের আলাউদ্দিন বিশ্বাসের মেয়ে মোছাঃ আমেনা খাতুনসহ অজ্ঞাতনামা ৫/৭জন। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা কোতয়ালি মডেল থানায় কর্মরত পুলিশ পরিদর্শক (ইন্টেলিজেন্স এন্ড কমিউনিটিং পুলিশ) সৈয়দ আলমগীর হোসেন মাসুদুর রহমান ও আমেনা খাতুনকে গ্রেফতার পূর্বক আদালতে রিমান্ডের আবেদন জানিয়েছেন বলে জানিয়েছেন।
উপশহর সি ব্লক বাসা নং ৫৬ নং বাসার মৃত গোলাম কুদ্দুস ভিকুর স্ত্রী শারমিন আক্তার লাকি দায়েরকৃত এজাহারে বলেছেন,তার স্বামী ভিকু প্রত্যাশা সমাজ কল্যাণ সংস্থার নির্বাহী পরিচালক। এজাহার নামীয় আসামীরা তার স্বামীর এনজিওতে চাকুরী করিতো। তাদের মধ্যে অর্থ আত্মসাতের ঘটনায় বিরোধ চলে আসছিল। গত ২ ডিসেম্বর বিকেলে ভিকু উপশহর এ ব্লকে প্রত্যাশা সমাজ কল্যাণ সংস্থায় যান। সেখান থেকে রাতে বাড়িতে ফিরছিল। রাত আনুমানিক ৯ টা ২০ মিনিটে উপশহর সি ব্লক বাসার সামনে পৌছালে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে থাকা উল্লেখিত আসামীসহ তাদের অজ্ঞাতনামা সহযোগী আসামী ভিকুকে লক্ষ্য করে গুলিবর্ষন ও বোমাবাজি ঘটায়। বোমায় ও গুলিতে ভিকু মাটিতে লুটিয়ে পড়লে তাকে স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় উদ্ধার করে ইজিবাইকে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের জরুরী বিভাগে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত বলে ঘোষনা করে।অর্থনৈতিক সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে ভিকুকে উল্লেখিত আসামীরা হত্যা করেছে বলে বাদী স্ত্রী শারমিন আক্তার লাকি এজাহারে উল্লেখ করেছেন। হত্যাকান্ডের ঘটনায় মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পুলিশ পরিদর্শক সৈয়দ আলমগীর হোসেন এজাহার নামীয় আসামী মাসুদুর রহমান ও মোছাম আমেনা খাতুনকে গ্রেফতার পূর্বক সোমবার দুপুরে আদালতে সোপর্দ করে ৫ দিনের রিমান্ডের আবেদন করে বলে জানিয়েছেন। গ্রেফতারকৃত আসামীরা হত্যাকান্ডের ব্যাপারে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছে বলে জানালেও মামলার তদন্তর স্বার্থে জানাতে অপারগতা প্রকাশ করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here