যশোর উপশহর খাজুরা বাসস্ট্যান্ডে হেলপার খুনের ঘটনায় তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা

0
248

বিশেষ প্রতিনিধি : উপশহর খাজুরা বাসস্ট্যান্ড এলাকায় বাস হেলপার আলামীন হত্যাকান্ডের ঘটনায় আদালতের নির্দেশে কোতয়ালি থানা কর্তা তিনজনের নাম উল্লেখ করে মামলা নিয়েছে। মামলার আসামীরা হচ্ছে, যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলার পাঠান পাইকপাড়া গ্রামের জাকির হোসেনের ছেলে আলা,সদর উপজেলার সারথী মিলের পূর্ব পাশে বিরামপুর গ্রামের রানার ছেলে সোহান ও কিসমত নওয়াপাড়ার রাব্বী।
মাগুরা জেলার শালিখা উপজেলার শতখালী গ্রামের মৃত উজির আলী মোল্যার ছেলে নাজিম উদ্দিন বাদি হয়ে যশোর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আমলী আদালত কোতয়ালি আদালতের বিজ্ঞ বিচারক বুলবুল ইসলামের কাছে পিটিশনে বলেছেন,তার ছেলে আলামিন একজন মটর শ্রমিক। সে যশোর মাগুরা সড়কের (ঢাকা মেট্টো-১১-০২৮২) বাসের হেলপার। গত ১২ জুন বাসটি মাগুরা হতে যশোর উপশহর খাজুরা বাসস্ট্যান্ডে আসে। সকাল ৯ টার পর বাসের চালক সুমন ও সুপার ভাইজার নান্নু বাস থেকে নেমে পাশ্ববর্তী হোটেলে খাবার খেতে যায়। এই সুযোগে পূর্ব শত্রুতার কারনে উল্লেখিত আসামীরা বাসের মধ্যে দায়িত্বে থাকা হেলপার আলামীনকে পেয়ে মারপিট করে চলে যায়। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে দেওয়া হয়। পরে অবস্থার অবনতির কারণে ঢাকায় নেওয়ার পথে মারা যান। পরবর্তীতে এ ঘটনায় কোতয়ালি থানায় এজাহার দায়ের করতে থানা পুলিশ মামলা হিসেবে নথিভূক্ত করতে নারাজ হওয়ায় উপায়ূন্তর না পেয়ে আদালতে পিটিশন দায়ের করেন। আদালতের নির্দেশে থানা কর্তা মামলা হিসেবে নথিভূক্ত করতে বাধ্য হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here