যশোর কেন্দ্রীয় কারাগারে ধারণ ক্ষমতার চেয়ে এখন কম আসামী অবস্থান

0
289

সশ্রম কারাদন্ড প্রাপ্ত কয়েদি ৫শ’৩০ জন ২৭ জন বিনাশ্রম ও ১০৪১ জন হাজতি
এম আর রকি : যশোর কেন্দ্রীয় কারাগারে ধারণ ক্ষমতার চেয়ে অনেক কম হাজতী ও কয়েদী আসামী বর্তমানে অবস্থান করছেন। গতকাল শনিবার পর্যন্ত এই কারাগারে ১ হাজার ৫শ’ ৭১জন বন্দি অবস্থানের কথা নিশ্চিত করেছেন সিনিয়র জেল সুপার মোঃ কামাল হোসেন। এর মধ্যে ৮৬জন মৃত্যুদন্ড প্রাপ্ত আসামী রয়েছে। অথচ যশোর কারাগারে বন্দিদের ধারণক্ষমতা ১৯১৯জন।
কারাগারের নির্ভরযোগ্য সূত্রগুলো জানিয়েছেন,গতকাল শনিবার ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত যশোর কেন্দ্রীয় কারাগারে ১ হাজার ৪১জন হাজতি ও ৫শ’ ৩০জন কয়েদি আসামী রয়েছে। এর মধ্যে পুরুষ আসামীর সংখ্যা ১ হাজার ৫শ’ ৪জন আর নারী বন্দির সংখ্যা ৬৭জন। কয়েদি আসামীদের মধ্যে সশ্রম কারাদন্দ কয়েদি আসামী রয়েছে ৫ শ’ ৩জন। এর মধ্যে ৮৬জন মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত আসামী রয়েছে। মৃত্যুদন্ড প্রাপ্ত আসামীর মধ্যে ৮০জন পুরুষ ও ৬জন নারী রয়েছে। সশ্রম কারাদন্ড আসামীদের মধ্যে ৩৯০জন পুরুষের মধ্যে ১৪জন কেএমবি সদস্য রয়েছে। নারী সশ্রম কারাদন্ড আসামী রয়েছে ২৭জন। এ সময় বিনাশ্রম কয়েদি পুরষ রয়েছে ২৭ জন। হাজতি ১ হাজার ৪১জন আসামীর মধ্যে ১ হাজার ৭জন পুরুষ ও ৩৪জন নারী রয়েছে। হাজতি আসামীর মধ্যে সাধারণ হাজতি পুরুষ ৭৪২জন নারী ৩৩জন,দায়রা হাজতি পুরুষ ২৫৪জন ও নারী ১জন,আরপি (ভারত) পুরুষের সংখ্যা ১১জন। এছাড়া,অন্যান্য বন্দির সংখ্যা যাবজ্জীবন প্রাপ্ত আসামী ৩১০জন পুরুষ ও ২২ জন নারী,বিডিআর ১জন,জেএমবি ১৫জন,বিদেশী সাজাপ্রাপ্ত (ভারত) পুরুষ ৩জন, বিদেশী বিচারাধীন (ভারত) পুরুষ ৩ জন,বিদেশী আরপি (ভারত) পুরুষ ১১জন,অপরাধী পাগল পুরুষ রয়েছে ৪জন,মানসিক হাজতি ১৩জন,মায়ের সাথে শিশুর সংখ্যা রয়েছে পুরুষ ৪জন ও যুদ্ধাপরাধী বন্দির সংখ্যা রয়েছে ২জন পুরুষ। কারাগারের কর্মরত সিনিয়র জেল সুপার মোঃ কামাল হোসেন আরো জানিয়েছেন,কারাগার স্থাপন হওয়ার পর থেকে এই কারাগারে ধারণ ক্ষমতা রাখা হয়েছে ১৯১৯জন। যার মধ্যে পুরুষ বন্দি ধারণ ক্ষমতার সংখ্যা ১৮৭৪জন ও ৪৫জন নারী ধারণ ক্ষমতার ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here