যশোর নব্য জেএমবি’র প্রধান মোজাফফর হোসেনসহ দু’জনের নামে সন্ত্রাস দমন আইনে মামলা

0
208
জঙ্গী মোজাফফারকে আটক করে নিয়ে যাচ্ছে অিাইনশৃঙ্খলা বাহিনী

বিশেষ প্রতিনিধি : সদর উপজেলার পাগলাদাহ পূর্ব পাড়ার এক বাড়িতে নব্য জেএমবি’র সামরিক শাখার যশোর অঞ্চলের প্রধান মোজাফফর হোসেনকে গ্রেডেন,পিস্তল,চাকুসহ নাশকতা কর্মকান্ড ঘটানোর বিভিন্ন মালামালসহ গ্রেফতারের ঘটনায় সন্ত্রাস দমন আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলায় পলাতক আসামী হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে নওগাঁ জেলার মান্দা উপজেলার পারইল আছিল হাজী পাড়ার মৃত লোকমান আলীর ছেলে মোয়াজ্জেম হোসেন। মঙ্গলবার মামলা দায়ের করার পর গ্রেফতারকৃত মোজাফফর হোসেনকে ৭ দিনের আবেদন চেয়ে আদালতে সোপর্দ করেছে। আগামী ২৬ অক্টোবর রিমান্ড শুনানীর দিন ধার্য্য করেছে বিজ্ঞ বিচারক বুলবুল ইসলাম।
মামলার বাদী যশোর কোতয়ালি মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক আবুল বাশার মিয়া দায়েরকৃত এজাহারে বলেছেন,সোমবার রাত আনুমানিক ৮ টায় গোপন সূত্রে খবর পান সদর উপজেলার পাগলাদাহ পূর্ব পাড়ার মৃত আজিজুর রহমানের ছেলে যশোর শহরের পুরাতন কসবা এমএম কলেজের ছাত্রবাসের মসজিদের ইমাম মোজাফফরের বাড়িতে জঙ্গীর আস্তানা গড়ে উঠেছে। উক্ত বাড়িতে নব্য জেএমবি’র সামরিক শাখা যশোর অঞ্চলের প্রধান মোজাফফর হোসেন,সহযোগী মোয়জ্জেম হোসেনসহ অজ্ঞাতনামা আরো ৩/৪জন অবস্থান করে নাশকতা মূলক কর্মকান্ড ঘটানোর জন্য সংগঠিত হয়েছে। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ হেডকোয়ার্টার ঢাকা, বগুরা পুলিশের বিভিন্ন টিমের সহায়তায় কোতয়ালি মডেল থানা পুলিশ সোমবার সন্ধ্যারাতে উক্ত বাড়িটি ঘিরে ফেলে। পরে ঘরে থাকা জঙ্গীদের আত্মসর্মপনের জন্য জানানো হয়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে মোয়াজ্জেম হোসেনসহ অজ্ঞাতনামা ৩/৪জন পালিয়ে গেলেও বাড়ির মালিক মসজিদের ঈমাম মোজাফফর হোসেনকে গ্রেফতার করে। পরে গ্রেফতারকৃত মোজাফফর হোসেন তার কক্ষের খাটের নীচ হতে দু’টি ব্যাগ বের করে। ব্যাগের মধ্যে থাকা একটি আমেরিকার তৈরী পিস্তল,৪ রাউন্ড পিস্তলের গুলি,৪ কেজি ৯৫০ গ্রাম নাইট্রিক এসিড,৩টি চাকু,২৫টি গ্রেনেড,৩০টি টাইমার মেশিন,২৫টি ক্যাপাসিটার,৩০টি রিং,২৩টি নিওজেল,৪৫টি রেজিষ্ট্রারসহ নাশকতা মূলক কর্মকান্ড ঘটানোর বিভিন্ন সরাঞ্জাম উদ্ধার করে। গ্রেফতারকৃত মোজাফফর হোসেনকে মঙ্গলবার দুপুরে যশোরের বিজ্ঞ চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করে ৭ দিনের রিমান্ডের আবেদন জানানো হয়।#

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here