যশোর পৌরসভার নির্বাচনে ৮২ জনপ্রার্থীর মনোনয়ন পত্র জমা ।। মেয়র পদে ৪

0
107

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ আসন্ন যশোর পৌরসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা এবং উৎসবমুখর পরিবেশে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ৮২ জনপ্রার্থী। এর মধ্যে মেয়র পদে আওয়ামী লীগ, বিএনপি, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ও স্বতন্ত্রসহ ৪ জন প্রার্থী তাদের মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। এছাড়া কাউন্সিলর পদে ৬৫ জন এবং সংরক্ষিত মহিলা আসন থেকে ১৩ জন মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। মঙ্গলবার সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত জেলা নির্বাচন অফিসারের কার্যালয়ে প্রার্থীরা তাদের কর্মীসমার্থকদের নিয়ে মনোনয়নপত্র জমা দেন। পৌর নির্বাচনে মেয়র পদে প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র গ্রহণ করেন জেলা নির্বাচন অফিসার হুমায়ন কবির আর কাউন্সিলর প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র গ্রহণ করেন সদর উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও এ নির্বাচনের সহকারি রিটার্নিং অফিসার আব্দুর রশিদ।
জেলা নির্বাচন অফিসসূত্রে, যশোর পৌরসভা নির্বাচনে সোমবার পর্যন্ত ৯৬ জন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন। এরমধ্যে ৬ মেয়র, ৭৭ জন কাউন্সিলর ও ১৩ জন সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থীর মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন। মনোনয়নপত্র সংগ্রহদের মধ্যে গতকাল মনোনয়নপত্র জমাদেন মেয়র পদে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পাওয়া জেলা সহসভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা হায়দার গনী খান পলাশ, বিএনপির মনোনীত প্রার্থী সাবেক মেয়র মারুফুল ইসলাম মারুফ, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মনোনীত প্রার্থী মোহাম্মদ আলী ও আওয়ামী লীগের স্বতন্ত্র আব্দুর রহমান কাকন মৃধা। মেয়র পদে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করলেও জমা দেননি
বর্তমান মেয়র জহিরুল ইসলাম চাকলাদার রেন্টু ও জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক এএসএম হুমাযুন কবীর কবু।
এদিকে কাউন্সিলর পদে ১নম্বর ওয়ার্ড থেকে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন বর্তমান কাউন্সিলর জাহাঙ্গীর আহম্মাদ শাকিল, জাকির হোসেন রাজিব, মুজিবর রহমান, টিপু সুলতান, সহিদুর রহমান। ২ নম্বর ওয়ার্ড থেকে কাউন্সিলর পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন এরা হলেন বর্তমান শেখ রাশেদ আব্বাস রাজ, সাবেক কাউন্সিলর শেখ সালাউদ্দিন, ইকবাল কবির, তপন কুমার ঘোষ, মীর মোশাররফ হোসেন বাবু, জাহিদুল ইসলাম, টুটুল মোল্ল্যা, আশরাফুল কবির বিল্লাল, ওসমানুজ্জামান চৌধুরী ও অনুব্রত সাহা মিঠুন।

৩ নম্বর ওয়ার্ড থেকে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন মোকসিমুল বারী অপু, উম্মে মাকসুদা মাসু, কামরুজ্জামান, দেলোয়ার হোসেন টিটো, ওমর ফারুক, শামিম আহমেদ রনি, সাব্বির মল্লিক ও শফিকুল ইসলাম। ৪ নম্বর ওয়ার্ড থেকে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন বর্তমান কাউন্সিলর মেস্তাফিজুর রজমান মুস্তা, জাহিদ হোসেন, ফেরদৌস হোসেন ও মোহাম্মদ মঈন উদ্দীন। ৫ নম্বর ওয়ার্ড থেকে মনোনয়নপত্র মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন বর্তমান কাউন্সিলর হাবিবুর রহমান মণি চাকলাদার, রাজিবুল আলম, হাফিজুর রহমান, মোকছেদুর রহমান ভুট্টো, শরীফ আব্দুল্লাহ আল মাসউদ, শাহাজাদা নেওয়াজ। ৬ নম্বর ওয়ার্ড থেকে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন বর্তমান কাউন্সিলর আলমগীর কবীর সুমন, এসএম আজাহার হোসেন স্বপন, আশরাফুজ্জামান, আনিছুজ্জামান, পাপিয়া আক্তার, আশরাফুল হাসান, আজিজুল ইসলাম, বিল্লাল পাটোয়ারী ও মিজানুর রহমান। ৭নম্বর ওয়ার্ড থেকে মনোনয়নপত্র মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন বর্তমান কাউন্সিলর গোলাম মোস্তফা, শামসুদ্দিন বাবু, আবু শাহ জালাল, শাহেদুর রহমান, শাহেদ হোসেন, কামাল হোসেন, জুলফিকার আলী, আবু শাহ জালাল (২), এসএম মাহমুদুল হাসান হাসান সুমন ও রবিউল ইসলাম রবি। ৮ নম্বর ওয়ার্ড থেকে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন বর্তমান কাউন্সিলর সন্তোষ দত্ত, সাবেক কাউন্সিলর মনিরুজ্জামান মাসুম, প্রদীপ কুমার নাথ বাবলু, গৌরাঙ্গ পাল বাবু , ওবাইদুল ইসলাম রাকিব ও রিয়াজ উদ্দিন। ৯ নম্বর ওয়ার্ড থেকে মনোনয়নপত্র মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন বর্তমান কাউন্সিলর আজিজুল ইসলাম, শেখ ফেরদৌস ওয়াহিদ, শেখ নাছিম উদ্দিন পলাশ, আজিজুল ইসলাম, আবু বক্কার সিদ্দিকী ও শেখ শহিদ, স্বপন কুমার ধর, খন্দকার মারুফ হুসাইন অ্যাডভোকেট আসাদুজ্জামান। এছাড়া সংরক্ষিত মহিলা আসন-১ (১, ২ ও ৩ নম্বর ওয়ার্ড) থেকে নির্বাচন করতে ইচ্ছুক ৯ জন প্রার্থী মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করেছেন। এরা হলেন, বর্তমান কাউন্সিলর আইরিন পারভীন, আয়েশা ছিদ্দিকা, সান-ই শাকিলা আফরোজ, সুফিয়া বেগম, অর্চণা অধিকারী, রেহেনা পারভীন, রুমা আক্তার, রোকেয়া বেগম ও সেলিনা খাতুন। সংরক্ষিত ওয়ার্ড- ২ (৪, ৫ ও ৬ নম্বর ওয়ার্ড) থেকে নির্বাচন করতে ইচ্ছুক ২ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। এরা হলেন, বর্তমান কাউন্সিলর নাসিমা আক্তার জলি ও নাছিমা সুলতানা। এছাড়া সংরক্ষিত ওয়ার্ড- ৩ (৭, ৮ ও ৯ নম্বর ওয়ার্ড) থেকে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন বর্তমান কাউন্সিলর রোকেয়া পারভীন ডলি ও শংকরপুর বটতলা মসজিদ এলাকার সালমা আক্তার বানী।
উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও এ নির্বাচনের সহকারি রিটার্নিং অফিসার আব্দুর রশিদ জানিয়েছেন, যশোর পৌরসভা নির্বাচনের মনোনয়ন দাখিলের শেষ তারিখ ছিলো ২ ফেব্রুয়ারি আর মনোনয়ন যাচাই-বাছাই ৪ ফেব্রুয়ারি। প্রত্যাহার ১১ ফেব্রুয়ারি। আর ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে ২৮ ফেব্রুয়ারি। এ পৌরসভায় ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) মাধ্যমে ভোটগ্রহণ করা হবে। এদিন সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে ভোটগ্রহণ চলবে।