যশোর বারে ইসহক সভাপতি শাহীন সম্পাদক

0
558

নিজস্ব প্রতিবেদক : যশোর জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে সভাপতি পদে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের অ্যাডভোকেট মোহাম্মাদ ইসহক ও সাধারণ সম্পাদক পদে বঙ্গবন্ধু আইনজীবী পরিষদের অ্যাডভোকেট শাহানুর আলম শাহীন নির্বাচিত হয়েছেন।
সোমবার রাত সাড়ে দশটায় এ নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা করা হয়। এর আগে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্যে দিয়ে এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।
ভোট গণনা শেষে ফলাফলে দেখা যায়, নির্বাচনে ১৭টি পদের মধ্যে সভাপতিসহ জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের সাতজন ও সাধারণ সম্পাদকসহ বঙ্গবন্ধু আইনজীবী পরিষদের দশজন প্রার্থী বিজয়ী হয়েছেন। নির্বাচনে মোট ৪৪২ ভোটারের মধ্যে ৪৩৬ জন ভোট দেন।
নির্বাচনে বঙ্গবন্ধু আইনজীবী পরিষদ ও জাতীয়তাবাদী ঐক্য প্যানেল আলাদা আলাদা প্যানেল দিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে। নির্বাচনকে ঘিরে সকাল থেকেই উৎসবমুখর ছিল সমিতির এক নম্বর ভবন এলাকা।
বেসরকারিভাবে ঘোষিত ফল অনুযায়ী সভাপতি পদে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য ফোরামের মোহাম্মদ ইসহক ২৭৯ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। তার একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী বঙ্গবন্ধু আইনজীবী পরিষদের অ্যাডভোকেট আব্দুল আলী ১৫১ ভোট পান।
সাধারণ সম্পাদক পদে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের প্রার্থী অ্যাডভোকেট আবু মোর্ত্তজা ছোটকে ১৪ ভোটের ব্যবধানে পরাজিত করে সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন বঙ্গবন্ধু আইনজীবী পরিষদের অ্যাডভোকেট শাহানুর আলম। বিজয়ী প্রার্থীর প্রাপ্ত ভোট ২২১। পরাজিত আবু মোর্ত্তজা ছোট পান ২০৭ ভোট।
বিজয়ী অন্যরা হলেন, সহসভাপতি পদে বঙ্গবন্ধু আইনজীবী ফোরামের সৈয়দ মোকাররম হোসেন (প্রাপ্ত ভোট ১৯৪), জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের সৈয়দ রুহুল কুদ্দুস কচি (১৭৮), যুগ্ম সম্পাদক পদে বঙ্গবন্ধু আইনজীবী ফোরামের বদরুজ্জামান পলাশ (২৪৪), সহকারী সম্পাদক পদে বঙ্গবন্ধু আইনজীবী ফোরামের পলক মৈত্র (২১৩), জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের গাজী শহিদুল ইসলাম (২০৫), লাইব্রেরি সম্পাদক পদে বঙ্গবন্ধু আইনজীবী ফোরামের এসএম নাসির আলম (২৩১) এবং কার্যকরী সদস্য পদে বঙ্গবন্ধু আইনজীবী ফোরামের মিতা রহমান (২৬২), নাসিমা আক্তার রুবি (২৫১), আফরোজা সুলতানা রনি (২৩৪), মেজবাহুল ইসলাম পারভেজ (২১৮), জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের সালাউদ্দীন শরীফ শাকিল (২১৭), মাধমেন্দ্র অধিকারী (২০৫), ডেজিনা ইয়াসমীন (১৯৭), শাহিনা খানম লিলি (১৯৬) এবং বঙ্গবন্ধু আইনজীবী ফোরামের নবকুমার কুণ্ডু (১৮৮)।
নির্বাচন পরিচালনা করেন প্রবীন আইনজীবী অ্যাডভোকেট ইসমত হাসার।
এদিকে নির্বাচনকে ঘিরে সারাদিন আদালতপাড়া সমিতির এক নম্বর ভবন এলাকা উৎসবমুখর ছিল। বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতারা নির্বাচন পর্যবেক্ষণ করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here