যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ১৯তম একাডেমিক কাউন্সিল অভিন্ন একাডেমিক ক্যালেন্ডারে হবে ক্লাস ও পরীক্ষার সিদ্ধান্ত গ্রহন

0
264

বিশেষ প্রতিনিধি: ‍সেশন জট কমাতে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (যবিপ্রবি) অভিন্ন একাডেমিক ক্যালেন্ডার প্রণয়নের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আগামী বছরের ১ জানুয়ারি থেকে এই একাডেমিক ক্যালেন্ডার অনুযায়ী ক্লাস, পরীক্ষা এবং পরীক্ষার ফল প্রকাশের সব সূচি একসঙ্গে জানতে পারবে বিশ্ববিদ্যালয়ের সব শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।
গতকাল রোববার বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৯তম একাডেমিক কাউন্সিলে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন একাডেমিক কাউন্সিলের চেয়ারম্যান ও যবিপ্রবির উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ার হোসেন।

সেশন জটের বিষয়ে অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ার হোসেন শিক্ষকদের উদ্দেশ করে বলেন, আপনাদের সন্তানেরা যেন এই বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াতে পারে, বিশ্ববিদ্যালয়কে সেই মানের করে গড়ে তুলতে হবে। এই বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিকাংশ শিক্ষকই তরুণ। আমি মনে করি, আপনারাই পারবেন বিশ্ববিদ্যালয়কে সেশন জট মুক্ত করতে। সুতরাং বিশ্ববিদ্যালয়কে সেশন জট দূর করতে সবাইকে কঠোর পরিশ্রম করতে হবে।

একাডেমিক কাউন্সিলের সভায় পদার্থ বিজ্ঞান, রসায়ন, গণিত এবং শারিরীক শিক্ষা ও ক্রীড়া বিজ্ঞান বিভাগে মাস্টার্স চালু করার বিষয়ে নীতিগত সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। পরবর্তী একাডেমিক কাউন্সিলে সংশ্লিষ্ট বিভাগগুলোর সক্ষমতা যাচাই করে মাস্টার্স প্রোগ্রামে ভর্তি কার্যক্রম শুরু করবে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। এ ছাড়া একাডেমিক কাউন্সিলের সভায় আগামী বছরের ফেব্রুয়ারি থেকে মার্চের প্রথম সপ্তাহের যেকোনো সুবিধাজনক সময়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের তৃতীয় সমাবর্তন করার বিষয় নিয়েও আলোচনা করা হয়।
একাডেমিক কাউন্সিলের ১৯তম সভায় বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় পরিষদের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষা ৯ ও ১০ নভেম্বর যথাক্রমে বৃহস্পতি ও শুক্রবার নেওয়ার কথা জানানো হয়।

সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রকৌশল ও প্রযুক্তি অনুষদের ডিন ড. বিপ্লব কুমার বিশ্বাস, ফলিত বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মো. ওমর ফারুক, জীব বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি অনুষদের ডিন ড. মো. ইকবাল কবির জাহিদ, বিজ্ঞান অনুষদের ডিন ড. মো. জিয়াউল আমিন, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. মিজানুর রহমান, একাডেমিক কাউন্সিলের সদস্যসচিব ও বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার প্রকৌশলী মো. আহসান হাবীব, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক আব্দুর রশীদসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের সব বিভাগের চেয়ারম্যানবৃন্দ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here