যশোর সদরের চান্দুটিয়া সিএজিএম মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব থেকে ১০ টি ল্যাপটপ চুরি

0
530

বিশেষ প্রতিনিধি : সদর উপজেলার চান্দুটিয়া গ্রামের সিএজিএম মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব থেকে ১০ টি ল্যাপটপ ১০টি মাউস ও ১০টি কড চুরি হয়েছে। চুরির কয়েকদিন পর পুলিশ চুরির সাথে জড়িত সাগর হোসেন নামে এক চোরের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে চুরি যাওয়া ল্যাপটপসহ মালামাল উদ্ধার করছে। সে যশোর সদর উপজেলার ছোট গোবিন্দপুর খালপাড়া গ্রামের মৃত আব্দুল আলীর ছেলে। সাগর হোসেনের স্বীকারোক্তি মোতাবেক সহযোগী সদর উপজেলার আরিচপুর বাওড় কান্দা এলাকার মৃত বাবর আলী মন্ডলের ছেলে সবুজ হোসেনকে গ্রেফতার করলে তাদের অপর সহযোগী জামাল হোসেনকে গ্রেফতার করতে পারেনি। এ ঘটনায় কোতয়ালি মডেল থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।
সদর উপজেলার চান্দুটিয়া সিএজিএম মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সদর উপজেলার ছোট গোবিন্দপুর গ্রামের মৃত মকবুল আহম্মেদের ছেলে এমএ মান্নান সোমবার রাতে কোতয়ালি মডেল থানা অজ্ঞাতনামা আসামীদের বিরুদ্ধে এজাহার দায়ের করেন। তিনি এজাহারে উল্লেখ করেন,করোনা ভাইরাসের কারণে স্কুল বন্ধ থাকায় গত ৯ এপ্রিল বেলা ১২ টা ৪৫ মিনিটের সময় উক্ত স্কুলের শিক্ষক সাইফুল ইসলাম, আব্দুর রশিদ, তোরাব আলী, জামাল হোসেনসহ অন্যান্য কর্মচারীরা স্কুলে তালা লাগিয়ে যে যার মতো বাড়িতে চলে যায়। ১২ এপ্রিল সকাল সাড়ে ৯ টায় উক্ত বিদ্যালয়ে শিক্ষকেরা এসে দেখেন। স্কুলের শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাবের ক্লপসিবল গেট ও দরজার তালা নাই। উক্ত ল্যাবের মধ্যে ১০টি ল্যাপটপসহ উক্ত মালামাল নাই। পরবর্তীতে থানায় এজাহার দায়ের করেন। থানায় এজাহার দায়ের করার পর কোতয়ালি পুলিশ উক্ত চুরি সংক্রান্ত বিভিন্ন স্থানে খোঁজ খবর নিয়ে সাগর হোসেনের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে চুরি যাওয়া ১০টি ল্যাপটপ ও মালামাল উদ্ধার করে। পরে সাগর হোসেনের স্বীকারোক্তি মোতাবেক সহযোগী সবুজ হোসেনকে গ্রেফতার করে। তবে তাদের অপর সহযোগী জামাল হোসেনসহ অজ্ঞাতনামাদের গ্রেফতার করতে পারেনি। ১৪ এপ্রিল মঙ্গলবার গ্রেফতারকৃত সাগর হোসেন ও সুবজ হোসেনকে উক্ত চুরির ঘটনায় মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৫ দিনের রিমান্ডের আবেদন জানিয়ে আদালতে সোপর্দ করে। বিজ্ঞ আদালতের বিচারক রিমান্ডের আবেদন শুনানীর তারিখ নির্ধারণ করেন ২৬ এপ্রিল বলে আদালত সূত্রে জানাগেছে। মঙ্গলবার সাগর হোসেন চুরির সাথে জড়িত ও তার সহযোগী কারা রয়েছে তা উল্লেখ করে স্বেচ্ছায় আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি প্রদান করেন।