যশোর সীমান্ত বেনাপোলে ত্রাণ নিয়ে আ’লীগের দুই গ্রুপের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া – ১০

0
305

বিশেষ প্রতিনিধি : দেশের সীমান্তবর্তী বেনাপোল পোর্ট থানার অন্তর্গত ডুবপাড়া গ্রামে ত্রান বিতরণকে কেন্দ্র করে শনিবার ১১ এপ্রিল সন্ধায় আওয়ামী লীগের এমপি গ্রুপ ও মেয়র গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ায় প্রায় ১০ জন আহত হয়েছে। আহতদের মধ্যে মেয়র গ্রুপের ৪জনকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে এবং এমপি গ্রুপের ৩ জন কে শার্শা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। ডুবপাড়া ও বোয়ালিয়া মোড়ে এখন টান টান উত্তেজনা বিরাজ করছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন বেনাপোলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। আহতরা হলেন, এমপি গ্রুপের জাহিদুল (৫০), শহিদুল (৪৩), মিনাজুল (৫৫) ও জুলহাস এবং মেয়র গ্রুপের মমিন (৫০), শাহাদৎ (৫৫), ইব্রাহিম (৩৬), নাসির (৪০)।
বেনাপোল পোর্ট থানার অফিসার ইনচার্জ মামুন খান সাংবাদিকদের বলেন পোর্ট থানার অন্তর্গত ডুবপাড়া গ্রামে দু‘গ্রুপে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার খবর পেয়ে সেখানে টহল টিম পাঠায়। আহতদের স্থানীয়রা উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেছে। এঘটনায় কেউ অভিযোগ করেনি। বেনাপোলের বাহাদুরপুর ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য মফিজুর রহমান বলেন, শার্শার সংসদ সদস্য শেখ আফিল উদ্দিন করোনা ভাইরাসের জন্য ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমানের মাধ্যমে ত্রাণ সামগ্রী পাঠান। এসব ত্রাণ সামগ্রী মফিজুর রহমান ওয়ার্ড পর্যায়ে ভাগ করে দেন। এ খবর জানতে পেবে মেয়র গ্রুপের লোকজন অভিযোগ তোলে এ ত্রাণ তাদের দেওয়া হবে না। এক পর্যায় তারা উত্তেজিত হয়ে বোয়ালিয়া মোড়ে ডাঃ জুলহাস কে মারপিট করে। এখবর জানতে পেরে ডুবপাড়া গ্রামে মেয়র গ্রুপ ও এমপি গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হয়। আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও যশোর হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠান হয়।