যুক্তরাষ্ট্রের মূল ভূখণ্ডসহ সব ঘাঁটি তছনছ করে দেওয়া হবে: উ. কোরিয়া

0
229

ম্যাগপাই নিউজ ডেক্স : যুক্তরাষ্ট্রের প্রশান্ত মহাসাগরীয় এলাকা গুয়ামে ক্ষেপণাস্ত্র হামলার হুমকি দিয়েছে উত্তর কোরিয়া। যুক্তরাষ্ট্রের ওপর যেকোনো হুমকির আগ্রাসী জবাব দেওয়া হবে বলে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের মন্তব্যের কয়েক ঘণ্টা পর স্থানীয় সময় বুধবার উত্তর কোরিয়ার পক্ষ থেকে এমন হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়। গুয়ামে যুক্তরাষ্ট্রের একটি সামরিক ঘাঁটি আছে। অঞ্চলটিতে হামলার পরিকল্পনার বিষয়টি ‘সতর্কভাবে পরীক্ষা করা হচ্ছে’ বলে উত্তর কোরিয়ার পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে। দেশটির রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা কেসিএনএতে প্রকাশিত উত্তর কোরিয়ার পিপল’স আর্মির এক মুখপাত্রের বিবৃতিতে বলা হয়, দেশটির সর্বোচ্চ নেতা কিম জং উন সিদ্ধান্ত নেওয়ামাত্রই হামলার পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা হবে। আরেক সামরিক মুখপাত্রের বিবৃতিতে বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্র ‘আত্মরক্ষার্থে যুদ্ধের’ পরিকল্পনা করছে। এমন কোনো পরিকল্পনা বাস্তবায়নের চেষ্টা করা হলে দেশটির মূল ভূখণ্ডসহ শত্রুদের সব ঘাঁটি তছনছ করে দেওয়া হবে। গত ৪ ও ২৮ জুলাই দুটি আইসিবিএমের পরীক্ষা চালায় উত্তর কোরিয়া। এর পরিপ্রেক্ষিতে দেশটির বিরুদ্ধে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে একটি নিষেধাজ্ঞা প্রস্তাব উত্থাপন করে যুক্তরাষ্ট্র। শনিবার সেই প্রস্তাব সর্বসম্মতিক্রমে পাস হয়। জাতিসংঘের নিষেধাজ্ঞায় উত্তর কোরিয়ার রপ্তানি বাণিজ্যের রাশ টেনে ধরা হয়েছে। এই নিষেধাজ্ঞার ফলে উত্তর কোরিয়ার ৩০০ কোটি ডলার রপ্তানির মধ্যে ১০০ কোটি কমে যেতে পারে বলে ধারণা করছেন বিশেষজ্ঞরা। নিষেধাজ্ঞার পর সোমবার এক অনুষ্ঠানে উত্তর কোরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী রি ইয়ং হো কোরীয় উপদ্বীপের বর্তমান অবস্থার জন্য যুক্তরাষ্ট্রকে দায়ী করেন। তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের পরমাণু অস্ত্রের হুমকি মোকাবিলায় আইসিবিএম পরীক্ষা একটি বৈধ পদক্ষেপ। উত্তর কোরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরো বলেন, ‘কোনো অবস্থাতেই আমরা পরমাণু অস্ত্র ও ব্যালিস্টিক রকেটের বিষয়টি আলোচনার টেবিলে আনব না।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here