যুক্তরাষ্ট্রের যুদ্ধজাহাজে হামলায় প্রস্তুত উত্তর কোরিয়া

0
224

ম্যাগপাই নিউজ ডেস্ক :উত্তর কোরিয়ার ক্ষমতাসীন ওয়ার্কার্স পার্টির গণমাধ্যম ‘দ্য রোডং সিনমুনের’ প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কোরীয় উপদ্বীপমুখী মার্কিন বিমানবাহী যুদ্ধজাহাজের অবস্থান এখনো স্পষ্ট নয়, তবে তা স্পষ্ট হলে এর উপর হামলা করতে প্রস্তুত আছে উত্তর কোরিয়া। বলা হয়, ‘আমাদের বিপ্লবী সেনাবাহিনী যুক্তরাষ্ট্রের পারমাণবিক শক্তিধর রণতরী ডুবিয়ে দেওয়ার জন্য প্রস্তুত। ’

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্দেশে কোরীয় উপদ্বীপের অভিমুখে যায় মার্কিন রণতরী ‘ইউএসএস কার্ল ভিনসন’। বিবৃতিতে মার্কিন সামরিক বাহিনীর প্যাসিফিক কমান্ড জানিয়েছিল, ‘উত্তর কোরিয়ার ক্রমাগত দায়িত্বহীন পারমাণবিক পরীক্ষা চালানো ও ক্ষেপণাস্ত্রের সংখ্যা বাড়িয়ে চলার মাধ্যমে যে ব্যাপক ঝুঁকি তৈরি হয়েছে, তা মোকাবিলার জন্যই এ পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। ’ কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, পূর্ণ যুদ্ধ প্রস্তুতি নিয়ে রণতরীটি কোরিয়ার দিকে যাচ্ছে। ’

এছাড়া রবিবার এই বহরে যুক্ত হয়েছে দুটি জাপানি যুদ্ধজাহাজও। সামিদের ও আশিগারা নামের জাহাজ দুটি শুক্রবার জাপান ত্যাগ করেছে। ঠিক কোথায় জাহাজগুলো গেছে সে বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানায়নি জাপান। জানা যায় জাপানের দক্ষিণাঞ্চল থেকে আড়াই হাজার কিলোমিটার দূরে অবস্থান করছে তাদের জাহাজ। এই মুহূর্তে জাহাজের অবস্থান নিয়ে স্পষ্ট কিছু জানায়নি যুক্তরাষ্ট্রও। দেশটির ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স বলেছেন, কিছুদিনের মধ্যেই কোরিয়া উপদ্বীপে পৌঁছে যাবে। কিন্তু বিস্তারিত কিছু বলেন নি।

উত্তর কোরিয়ার ওই সংবাদমাধ্যম মার্কিন নৌবহরকে ‘পশুর’ সঙ্গে তুলনা করে জানায়, ‘এটাতে হামলা করে আমাদের শক্তিমত্তা প্রমাণ করা যাবে। ’

মঙ্গলবার দেশটি কোরিয়ান পিপল আর্মির ৮৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন করতে যাচ্ছে। এখন পর্যন্ত পাঁচবার পারমাণবিক পরীক্ষা চালিয়েছে। গতবছরই দুইবার চালায়। জাতিসংঘের নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও সিরিজ মিসাইল পরীক্ষা চালিয়েছে উত্তর কোরিয়া।

দেশটির দাবি, আত্মরক্ষার জন্য তারা পারমাণবিক পরীক্ষা চালিয়েছে। আর যেকোনও আগ্রাসনের বিপক্ষে যুক্তরাষ্ট্রকে পারমাণবিক হামলার হুমকি দিয়েছে তারা।

মার্কিন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী জিম ম্যাটিস বলেছেন, উত্তর কোরিয়ার বক্তব্য থেকে এটাই স্পষ্ট হয় যে তাদের বিশ্বাস করা যায় না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here