রমজানে আমদানি পণ্যের বাজার সহনশীল পর্যায়ে রাখতে বেনাপোলে ২৪ ঘণ্টা খোলা রাখার নির্দেশ

0
69

আরিফুজ্জামান আরিফ : রমজানে আমদানি পণ্যের বাজার সহনশীল পর্যায়ে রাখতে আন্তর্জাতিক স্থলবন্দর বেনাপোলে ২৪ ঘণ্টা খোলা রাখার নির্দেশনা দিয়েছেন বেনাপোল কাস্টমস হাউজ। তবে ইফতার ও সেহেরির সময় মুসলিম সম্প্রদায়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কর্মবিরতি থাকছে। এসময় অমুসলিম সম্প্রদায়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের অফিস সচল রাখার কথা বলা হয়েছে।

সোমবার সকালে বেনাপোল কাস্টমস কমিশনার মোহাম্মদ বেলাল হোসেন চৌধুরী স্বাক্ষরিত চিঠি বন্দরে বাণিজ্যের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন দপ্তরে দেখা গেছে।

জানা গেছে, আমদানি পণ্য দ্রুত বাজারজাত করতে গেলো বছর থেকে বেনাপোল বন্দরের সঙ্গে ভারতের পেট্রাপোল বন্দরের মধ্যে সপ্তাহে সাতদিনে ২৪ ঘণ্টা বাণিজ্য শুরু হয়। কিন্তু কিছুদিন এভাবে চলার পর বিভিন্ন প্রতিবন্ধকতায় তা বন্ধ হয়ে যায়। বর্তমানে এ বন্দরে সপ্তাহের ছয়দিন ২৪ ঘণ্টা বাণিজ্য সচল রয়েছে। বিশেষ সরকারি ছুটির দিন আমদানি-রপ্তানি বন্ধ থাকছে।

স্থানীয় ব্যবসায়ীরা জানান, যোগাযোগ ব্যবস্থা সহজ হওয়ায় দেশের স্থলপথে আমদানিকারকদের ৭৫ শতাংশ পণ্য বেনাপোল বন্দর দিয়ে আমদানি-রপ্তানি হয়। মাত্র ৪ ঘণ্টার ব্যবধানে সমস্ত আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করে একটি পণ্যবাহী ট্রাক ভারতের বাণিজ্যিক শহর কলকাতা থেকে রওনা হয়ে বেনাপোল বন্দরে পৌঁছায়। তেমনি প্রায় একই সময়ে বেনাপোল বন্দর থেকে রপ্তানি পণ্য নিয়ে ট্রাক পৌঁছায় কলকাতায়। কম সময় ও অর্থ সাশ্রয়ের জন্য ব্যবসায়ীদের এ পথে বাণিজ্যে আগ্রহ বেশি। প্রতি বছর এ বন্দর থেকে সরকার প্রায় ৮ হাজার কোটি টাকা রাজস্ব আহরণ করছে।

সকালে বেনাপোল বন্দর ঘুরে দেখা গেছে, রোজার মধ্যেও ভারত থেকে পেঁয়াজ, চাল, মাছসহ বিভিন্ন খাদ্যদ্রব্য প্রচুর পরিমাণে আমদানি হচ্ছে। পরে এসব পণ্য খালাস শেষে তা দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে সরবরাহ হচ্ছে। এছাড়া শিল্প-কারখানায় উৎপাদন কাজে প্রয়োজনীয় কাঁচামালের আমদানিও স্বাভাবিক রয়েছে।

বেনাপোল বন্দর পরিচালক (ট্রাফিক) আমিনুল ইসলাম জানান, রমজানে দ্রুত পণ্য খালাসে সংশ্লিষ্ট সব বিভাগকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here