রাজগঞ্জে শান্তা এন্টারপ্রাইজকে ’ইউ এস এ আই ডি’র সনদ পত্র ও কৃষি কর্মকর্তা পুরস্কার প্রদান

0
501

উত্তম চক্রবর্ত্তী: মণিরামপুর উপজেলার রাজগঞ্জ বাজারের শান্তা এন্টারপ্রাইজ এর স্বত্তাধিকারী মিনা পারভীন কৃষি উপকরন সঠিক ব্যবহার ও বিক্রয় বিষয়ক রিটেইলার প্রশিক্ষন কোর্স সমাপ্ত করাই ’ইউ এস এ আই ডি’ সনদ পত্র প্রদান করেছেন। এদিকে নারী হয়ে গুটি ইউরিয়া তৈরী করা ও রোপন কার্যক্রম পরিচালনা করা এবং কৃষি উপকরন বিত্রেতা কার্যক্রম অত্যান্ত সফলভাবে পরিচালিত করছে। এ ছাড়া কষি উপকরন সঠিক ব্যবহারের জন্য কৃষকদের কাছে সঠিক পরামর্শ প্রদান করাই মণিরামপুর উপজেলা কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তর কত্রিক বিভিন্ন সময় তাকে বিভিন্ন ধরনের পুরস্কার প্রদান করেছেন। সুত্রে জানা যায়, শান্তা এন্টারপ্রাইজ এর স্বত্তাধিকারী মিনা পারভীন ২০১৬ সালে নারী কৃষি উপকরন বিক্রেতা হিসাবে ২০১৬ সালে চ্যাম্পিয়ান হওয়ায় ইউ এস এ আই ডি তাকে চ্যাম্পিয়ান ক্রেষ্ট প্রদান করেন। একই সালে ইউ এস এ আই ডি রিটেইলার হিসাবে প্রশিক্ষন নেওয়ায় মিনা পারভীনকে সাটিফিকেট প্রদান করেন। এবং ২০১৭ সালে সর্বোচ্চ কৃষি উপকরন বিক্রেতা হিসাবে চ্যাম্পিয়ান হওয়ায় ’ইউ এস এ আই ডি’ ও ’এ আই আর এন’ শান্তা এন্টারপ্রাইজ মালিককে পুরস্কার হিসাবে ক্রেষ্ট প্রদান করেন। একই ভাবে শান্তা এন্টারপ্রাইজ এর রাজগঞ্জ বাজারের নিজস্ব কারখানায় নিজে ও অন্য নারীদের দিয়ে গুটি ইউরিয়া তৈরী করে সেই গুটি ইউরিয়া ধান ক্ষেতে নারীদের দিয়ে রোপন করাই ব্যপক সাফল্য , কৃষি উপকরন সর্বোচ্চ বিক্রিতা ও কৃষকদের মাঝে উপকরন পৌছানো এবং সঠিক পরামর্শ দেওয়ায় মণিরামপুর উপজেলা কৃষি অধিদপ্তর তাকে গুটি ইউরিয়া তৈরীর ম্যাশিন , এই গুটি ইউরিয়া ধান ক্ষেতে রোপনের ম্যাশিন ও একটি কম্পিউটার ট্যাব প্রদান করেছেন। এদিকে গত ১ আগষ্ট রাজগঞ্জের শান্তা এন্টারপ্রাইজের গুটি ইউরিয়া তৈরীর কারখানায় পরিদর্শনে আসেন মণিরামপুর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সশান্ত তরফদার। এ সময় কারখানার মালিক মিনা পারভীন নিজে ও অন্য নারীদের দিয়ে গুটি ইউরিয়া তৈরী করা দেখে কৃষি কর্মকর্তা সন্তষ্টি প্রকাশ করেন এবং মালিক মিনা পারভীনকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। একই সাথে তিনি দোকানের কৃষি উপকরন ও কৃষি সামগ্রী পরিদশন করেন বলে দোকান মালিক সুত্রে জানা যায়। এবিষয়ে কৃষি কর্মকর্তা সুশান্ত তরফদার বলেন, কৃষি ক্ষেত্রে নারীদের যে ভুমিকা রয়েছে, সে ক্ষেত্রে মিনা পারভীন এর অধিক সুনাম রয়েছে। সে কৃষি উপকরন কৃষকদের মাঝে পৌছায়ে দিতে অধিক পারদর্শি। কীটনাশক বালাই নাশক সম্পর্কে কৃষকদের মাঝে সঠিক পরামর্শ দিয়ে থাকেন। যার কারনে তাকে কৃষি ক্ষেত্রে ও কৃষি উপকরন বিক্রেতা সফল নারী হিসাবে আখ্যায়িত করা হয়েছে। এবং বিভিন্ন সময় বিভিন্ন কৃষি উপকরন পুরস্কার হিসাবে প্রদান করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here