রাজগঞ্জে ১০ বছরের সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামীকে আটক করেছে পুলিশ

0
257

উত্তম চক্রবর্ত্তী : ১০ বছরের সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামী কামরুলকে জনতা আটক করে পুলিশের কাছে সোপর্দ করেছে। কামরুল এখন পুলিশ হেফাজাতে মণিরামপুর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে বলে জানা গেছে।

পুলিশ সুত্রে জানা যায়, মণিরামপুর উপজেলার শ্যামকুড় গ্রামের নিজাম উদ্দীনের ছেলে কামরুল ইসলাম (৩৬) এর নামে ডাকাতি, ছিনতাইসহ একাধিক মামলা রয়েছে। একটি মামলায় আদালত কামরুলকে ১০ বছরের সাজা দেয়।

আদালত তাকে পলাতক আসামীর তালিকায় নাম প্রকাশ করেন। সেই থেকে সে পালিয়ে বেড়াচ্ছে। সুত্রে জানায় কামরুল পালিয়ে থেকেও সম্প্রতি হাজরাকাটি বেলতলা এলাকার একটি মটরসাইকেল ছিনতাই করে। ঐ সময় মটরসাইকেল মালিক কামরলকে চিনতে পারে। সেই থেকে তারা কামরুলকে খোজ করতে থাকে। এক পর্যায় তারা জানতে পারে শুক্রবার সন্ধায় সে শাহাপুর গ্রামের রহমান সরদারের বাড়িতে রয়েছে।

সেই থেকে ছিনতাই হওয়া মটরসাইকেল মালিক সহ অনেক লোকজন গভীর রাতে ঐ বাড়িতে আসে। ঘরের ভীতরে লুকিয়ে থাকা কামরুলকে ঐ লোকজন ধরে নিয়ে যেতে চাই। কিন্তু ঐ গ্রামের লোকজন বাঁধা সৃষ্টি করে। এরই মাঝে পুলিশকে সংবাদ দেয়।

রাত আড়াইটার দিকে রাজগঞ্জ পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ এস আই আইনুদ্দীন, এ এস আই ইমরান হোসেন সহ সঙ্গীয় ফোর্স ঘটনা স্থলে যায়। পলাতক আসামী কামরুল পুলিশের উপস্থিতি জানতে পেরে ঘরের টালী খুলে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এ সময় জনগন তাকে ধরে ও গনধুলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে। এ বিষয়ে ইনচার্জ জানান, কামরুল ১০ বছরের সাজা প্রাপ্ত পলাতক আসামী।

সে লুকিয়ে থাকা ঘরের টালী খুলে চাল থেকে লাফিয়ে পালানোর সময় গুরুতর আহত হয়। কামরুলকে আটক করে রাতেই থানায় দেওয়া হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here