রাতে দুই জায়ান্টের লড়াই, চ্যাম্পিয়নের চ্যাম্পিয়ন হবে কে?

0
34

ক্রীড়া প্রতিবেদক : ঊনত্রিশ বছর আগের কথা। ১৯৯৩ সালে দিয়াগো ম্যারাডোনার আর্জেন্টিনা মুখোমুখি হয়েছিল ডেনমার্কের। সে সময় ইউরো কাপ চ্যাম্পিয়ন ছিল ড্যানিশরা। কোপা আমেরিকাজয়ী ছিল আর্জেন্টিনা। দুই মহাদেশের দুই চ্যাম্পিয়নকে নিয়ে উয়েফা ও কম্বেল কর্তৃপক্ষ আয়োজন করেছিল আরতেমিও ফ্রাঞ্চি কাপ। ম্যাচটা অনুষ্ঠিত হয়েছিল আর্জেন্টিনার হোসে মারিয়া মিনেয়া স্টেডিয়ামে। ১-১ ব্যবধানে ড্রয়ের পর টাইব্রেকারে ম্যারাডোনার দল জিতেছিল ৫-৪ ব্যবধানে। এরও আট বছর আগে প্রথমবার আরতেমিও ফ্রাঞ্চি কাপ অনুষ্ঠিত হয়েছিল প্যারিসের পার্ক ডি প্রিন্সেস স্টেডিয়ামে। সেবার ইউরো কাপজয়ী ফ্রান্স কোপা আমেরিকাজয়ী উরুগুয়েকে ২-০ গোলে হারিয়েছিল।

দীর্ঘ ২৯ বছর পর আবারও দুই মহাদেশের দুই চ্যাম্পিয়নকে নিয়ে সুপার কাপ আয়োজন করছে উয়েফা ও কম্বেল কর্তৃপক্ষ। এবার নাম দিয়েছে ফিনালিসিমা।

গত বছর কোপা আমেরিকা জয় করেছে লিওনেল মেসিদের আর্জেন্টিনা। মারাকানা স্টেডিয়ামে গত বছর ১০ জুলাই অনুষ্ঠিত ফাইনালে তারা ১-০ গোলে হারায় ব্রাজিলকে। গত বছরের ১১ জুলাই ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে ইউরো কাপের ফাইনালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ১-১ গোলে ড্র করার পর টাইব্রেকারে ৩-২ গোলে জিতে যায় ইতালি। দুই মহাদেশের দুই চ্যাম্পিয়ন এবার মুখোমুখি হচ্ছে ফিনালিসিমায়।
আজ রাত পৌনে একটায় লন্ডনের ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে ম্যাচটি।

আর্জেন্টিনার বিপক্ষে ইতালি দীর্ঘদিন ধরে জয়ের দেখা পাচ্ছে না। ১৯৮৭ সালে সর্বশেষ আর্জেন্টিনাকে হারিয়েছিল ইতালি। সেবার জুরিখে অনুষ্ঠিত ম্যাচে ইতালি ৩-১ গোলে হারিয়েছিল ম্যারাডোনার আর্জেন্টিনাকে। এরপর আরও পাঁচবার মুখোমুখি হয়েছে দুই দল। একবারও জিততে পারেনি ইতালি। চারবার হেরেছে। একবার ড্র করেছে। দুই দল মোট ১৫ বার মুখোমুখি হয়েছে। এর মধ্যে ছয়বার জিতেছে ইতালি। চারবার জিতেছে আর্জেন্টিনা। দুই দল ড্র করেছে পাঁচবার।

চার বছর আগে ২০১৮ সালে রাশিয়ায় অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপে খেলার যোগ্যতা অর্জন করতে পারেনি ইতালি। সেই দুঃখ ভোলার আশায় তারা ইউরোপ জয় করে। দুর্দান্ত একটা দলও গড়ে তোলে। কিন্তু ইউরোপিয়ান অঞ্চলের বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের বাধা আরও একবার পাড়ি দিতে ব্যর্থ হয়েছে ইতালি। নর্থ মেসিডোনিয়ার কাছে প্লে-অফ ম্যাচে হেরে বিদায় নিয়েছে আজ্জুরিরা। টানা দুবার বিশ্বকাপে নেই ইতালি। ফুটবলপ্রেমীদের জন্য বিষয়টা ভয়ংকর এক দুঃসংবাদ। আর্জেন্টিনা অবশ্য বরাবরের মতোই বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্ব নিশ্চিত করেছে। ল্যাটিন আমেরিকা অঞ্চল থেকে হাতে কয়েক ম্যাচ রেখেই কাতার বিশ্বকাপের টিকিট পেয়ে গেছেন মেসিরা। চূড়ান্ত পর্বে আর্জেন্টিনা সি-গ্রুপে মুখোমুখি হবে সৌদি আরব, মেক্সিকো ও পোল্যান্ডের। এখন প্রতিটা ম্যাচেই আলবেসিলেস্তরা বিশ্বকাপের প্রস্তুতি নিচ্ছে।

সর্বশেষ তারা ২০১৮ সালের মার্চে মুখোমুখি হয়েছিল। সেবার আর্জেন্টিনা জিতে যায় ২-০ গোলে। ম্যানচেস্টার স্টেডিয়ামের সেই ম্যাচে এভার বানেগা ও ম্যানুয়েল লানজিনির গোলে জয় পায় আর্জেন্টিনা। এবার কী অপেক্ষা করছে? কে জিতবে ফিনালিসিমা?