শার্শার নিজামপুর বাজারে মরাগরুর মাংশ বিক্রিকালে দুজন হাতে নাতে ধরা

0
89

আশানুর রহমান আশা, বেনাপোল : শার্শা উপজেলার নিজামপুর বাজারে মরা গরুর দুই মণ মাংস বিক্রিকালে হাতেনাতে কসাইসহ সহযোগীকে আটক করেছে জনতা। পরে স্থানীয় বাজার কমিটি ১৫ হাজার টাকা জরিমানা করে অভিযুক্ত দুই জনকে ছেড়ে দেয়।

বুধবার (১৬ মার্চ) সকালে শার্শা উপজেলার নিজামপুর বাজারে ঘটনাটি ঘটেছে। আটক দুই জন হলেন- কসাই সূবর্ণখালী গ্রামের আলী ফকির (৪৩) ও সহযোগী ছোট নিজামপুর গ্রামের শুকুর আলী (৪৮)।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বুধবার সকালে একটি মরা গরু জবাই করে মাংস বিক্রির জন্য নিজামপুর বাজারের নিয়ে আসেন কসাই আলী ফকির। এ সময় মাংস দুর্গন্ধযুক্ত হওয়ায় তা দেখে ক্রেতাদের মাঝে সন্দেহের সৃষ্টি হয়। এরপর স্থানীয় লোকজনের কাছে বিষয়টি সন্দেহজনক মনে হলে বাজার কমিটি ও স্থানীয় ইউপি সদস্যসহ নেতাকর্মীদের জানান।

স্থানীয় ইউপি সদস্য ইকবাল হোসেন বলেন, সকালে বাজারের কসাই আলী ফকিরের মাংসের দোকানে মাংস কিনতে যেয়ে দেখি পচা। সঙ্গে সঙ্গে দুই মণ মাংসসহ তাদের আটক করা হয়। পরে স্থানীয় নিজামপুর বাজার কমিটি ১৫ হাজার টাকা জরিমানা করে এবং ওই মাংসে ডিজেল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়।

বিক্রি করার জন্য আনা এসব মাংস মরা গরুর স্বীকার করে কসাই আলী ফকির বলেন, আমি গোড়পাড়ার কসাই ইদ্রিস আলীর কাছ থেকে মাংস এনে বিক্রি করি।

নিজামপুর বাজার কমিটির সভাপতি শাজাহান তরফদার বলেন, আলী কসাই বাইরে থেকে মাংস এনে বাজারে বিক্রি করে থাকে। সে প্রায়ই এ ধরনের কাজ করে আসছে। আজ বুধবার সকালে মরা গরুর মাংস বিক্রিকালে জনতার হাতে আটক হয়। পরে তাকে ১৫ হাজার টাকা জরিমানা করে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।