শাস্তি নয়, নড়াইলের পুলিশ সুপারকে অবশেষে বদলী!

0
60

নড়াইলে অধ্যক্ষ লাঞ্ছিত

নড়াইল প্রতিনিধি : নড়াইলের মির্জাপুর ইউনাইটেড ডিগ্রি কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ স্বপন কুমার বিশ্বাসকে জুতার মালা পরিয়ে লাঞ্ছনার ঘটনায় দেশ জুড়ে তৈরি হয়েছে ক্ষোভ। জেলার পুলিশের সর্বোচ্চ নির্বাহী পুলিশ সুপারের উপস্থিতিতে অধ্যক্ষ লাঞ্ছনার ঘটনায় তাঁর (এসপি) শাস্তির দাবি করে আসছিল দেশের বিভিন্ন ব্যক্তি ও সংগঠন।
এতে নড়াইল জেলার পুলিশ সুপার প্রবীর কুমার রায়ের শাস্তির দাবি জোরালো হলেও কোন ব্যবস্থা নেয়নি পুলিশ বিভাগ। অবশেষে তাকে বদলি কওে চট্টগ্রাম রেঞ্জে ডিআইজি’র কার্যালয়ে অতিরিক্ত উপ-পুলিশ মহাপরিদর্শক হিসেবে পদায়ন করা হয়েছে।
বুধবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের পুলিশ-১ শাখার উপসচিব ধনঞ্জয় কুমার দাসের সাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।
জানা যায়, ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপির বহিষ্কৃত মুখপাত্র নূপুর শর্মাকে প্রণাম জানিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ১৭ জুন ছবি পোস্ট কওে নড়াইল মিজাপুর ইউনাইটেড ডিগ্রি কলেজের ছাত্র রাহুল দেব। এরপর ১৮ জুন সকালে তাকে কলেজে দেখে তার সহপাঠীরা তা ডিলিট (মুছে) ফেলতে বলে। কিন্তু সেটিনা করায় সাধারণ শিক্ষার্থীদেও মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। এক পয্যায় উত্তেজিত জনতার চাপে পরে পুলিশের উপস্থিতিতেই জুতার মালা পরিয়ে অভিযুক্ত রাহুল ও অধ্যক্ষ স্বপন কুমার বিশ্বাসকেও পুলিশের হেফাজতে নিয়ে আসে।
মোবাইল ফোনে ধারণ করা এ ঘটনার ভিডিও ফুটেজ ছড়িয়ে পড়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। দেশজুড়ে তৈরি হয় তীব্র ক্ষোভ, নিন্দা আর প্রতিবাদ।
এ ঘটনার পর থেকে নড়াইলের পুলিশ সুপার প্রবীর কুমার রায়ের শাস্তি দাবি কওে আসছিল বিভিন্ন ব্যক্তি ও সংগঠন। ঘটনার সময় তার অবস্থান ও ভূমিকা নানা প্রশ্নের জন্ম দেয়। তাঁর শাস্তির দাবিকে আমলে নেয়নি পুলিশ সদর দফতর।
নড়াইলের পুলিশ সুপার এ ুঘটনার আগেই পদোন্নতি পাওয়ায় তাকে বদলি করা হয়েছে বলে প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়েছে।