শেখ মোঃ আমিনুর রহমান হিমু’র দেওয়া নতুন শাড়িতে খুশি ছিয়ারন বিবি

0
366

নড়াইল প্রতিনিধি: বয়স ৬৫ প্রায়। স্বামী ও ভিটে মাটি হারা ছিয়ারণ এক প্রতিবন্ধি সন্তান নিয়ে অন্যের বাড়িতে আশ্রিতা। মানুষের দেওয়া সাহায্যে চলে তার জীবন সংসার। অসুস্থ্য বয়সের ভারে নুয়ে পড়া শরীর নিয়ে চাল-পানি খেয়ে ২৯টি রোজাও রেখেছেন তিনি। নড়াইলের লোহাগড়ায় আড়িয়ারা গ্রামে তার বসবাস। পবিত্র ঈদুল-ফিতরের দিন একটি নতুন কাপড় ও খাবারের আশায় ঘুরেছেন দারে দারে প্রায় দুই কিঃ মিঃ। কিন্তু ভাগ্যে জোটেনি কিছুই!
অবশেষে, নড়াইলের লোহাগড়ার কৃতি সন্তান শেখ মোঃ আমিনুর রহমান হিমু’র পক্ষ থেকে পবিত্র ঈদুল ফিতরের দিন অসহায় ছিয়ারণ বিবিকে একটি শাড়ি দেওয়া হয়। নতুন শাড়ি পেয়ে অসহায় ছিয়ারণ বিবি আবেগে কাঁদতে কাঁদতে বলতে থাকেন ‘বাবা আল্লাহ তুমাদের ভালো করবো। তুমরা বাইচা থাকো দির্ঘকালো’।
এদিকে, পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে এ বছর শেখ মোঃ আমিনুর রহমান হিমু’র পক্ষ থেকে নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলায় নলদী, লাহুড়িয়া, শালনগর, নোয়গ্রাম লক্ষ্মীপাশা, জয়পুর, লোহাগড়া, দিঘলিয়া, মল্লিকপুর, নোয়াগ্রাম, ইতনা, কাশিপুর ইউনিয়নে দুঃস্থ মানুষের মাঝে দুই শতাধিক করে শাড়ি ও লুঙ্গি বিতরণ করা হয়। এছাড়া, লোহাগড়া পৌরসভায় এক শতাধিক এবং বাঁশগ্রাম ইউনিয়নে দুই শতাধিক নতুন শাড়ি ও লুঙ্গি বিতরণ করা হয়েছে।
নড়াইল সদর উপজেলার দারিয়াপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক আব্দুস সবুর মোল্যা বলেন, ‘শেখ মোঃ আমিনুর রহমান হিমু’র মতো বৃত্তবান মানুষ সমাজের সুবিধা বঞ্চিত ও দুঃস্থদের পাশে এসে দাড়ালে তারা আরো উন্নত সমৃদ্ধ জীবন গড়ার অনুপ্রেরণা পাবে’।
বিশিষ্ঠ সমাজসেবক শেখ মোঃ আমিনুর রহমান হিমু বলেন, ‘এটি আমার একটি ক্ষুদ্র প্রচেষ্টা। নড়াইলের সাধারণ মানুষের জন্য আরো অনেক কার্যক্রম চলমান রয়েছে। ভবিষ্যতে এ ধরনের কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে’।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here