‘শেখ হাসিনা আল্লাহ ছাড়া কারো কাছে আত্মসমর্পণ করেননি’

0
337

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি : সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনা আল্লাহ ছাড়া কারো কাছে আত্মসমর্পণ করেননি। বঙ্গবন্ধুর হত্যার পর যে চিহ্নিত যুদ্ধাপরাধীদের বিচার সেটাই শেখ হাসিনার অসম সাহসে সম্পন্ন হয়েছে। আজ নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ের কাঁচপুর সেতুর পূর্ব ঢালে সড়ক পরিদর্শনের সময়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন। এর আগে বিএনপির পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল, সুপ্রিম কোর্টের সামনের মূতি অপসারণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আত্মসমর্পণ করেছেন। ওই প্রশ্নের জবাবেই মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

রোজা ও যানজট প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, রোজার প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছি। উত্তর জনপদের রাস্তাগুলোর ট্রাফিক ব্যবস্থা ভালো থাকবে। সবচেয়ে থেকে বড় সমস্যার প্রধান কারণ হলো ফিটনেস বিহীন গাড়ি। এ গাড়িগুলো জায়গায় জায়গায় নষ্ট হয়ে যায় এবং অতিরিক্ত ট্রিপ নিতে গিয়ে এরা বেপরোয়া গাড়ি চালায়। যে কারণে ঈদের সময় যানজট সৃষ্টি হয়। স্বাভাবিকভাবে রাস্তায় যানজট হওয়ার কোনো কারণ নেই। রাস্তার শৃঙ্খলা বজায় রাখার ব্যাপারে ধৈর্য্যের অভাব আছে। এ ধৈর্য্যের অভাবটা দূর করা যায়, সেভাবে মালিক শ্রমিক নেতৃবৃন্দের সঙ্গে আমরা ইতোমধ্যেই কথা বলেছি। মূলত ঈদের সময় গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টগুলোতে আমরা বেশি করে আনসার নিয়োগ করছি। যেসব এলাকাগুলো যানজট প্রবণ ও লম্বা যানজট সৃষ্টি হয় সেসব জায়াগায় আনসার নিয়োগের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। আর মালিকদেরকে অনুরোধ করা হয়েছে, তারা যেন ফিটনেস বিহীন গাড়ি রাস্তায় না নামান।

তিনি আরো বলেন, ভাস্কর্য নিয়ে আমরাদের প্রশ্ন নাই। প্রশ্ন হচ্ছে ভাস্কর্যের লোকেশনের সঙ্গে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যেটা বলেছেন এখানে ঈদের জামাত হয়। ঈদগাহের পাশে ভাস্কর্যটা এমন ভাবে স্থাপন করা হয়েছে, যেটা নামাজের সময় সামনে থাকে। কাজেই এ বিষয়টা নিয়ে আমাদের নেত্রী প্রশ্ন তুলেছেন। তাছাড়া দেশের মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি এবং মুক্তিযুদ্ধের চেতনা যে ভাস্কর্যগুলো বাংলাদেশে আছে, সেগুলো সরানোর প্রশ্নই উঠে না।

সুপ্রিম কোর্টের সামনে স্থাপিত গ্রীক মূর্তি স্থাপন ও অপসারণ দুটিই সুপ্রিম কোর্টের সিদ্ধান্ত ছিল জানান মন্ত্রী। তিনি বলেন, ভাস্কর্যটা সুপ্রিম কোর্টের সামনে স্থাপন করা ও সরানো সেটা প্রধান বিচারপতির সিদ্ধান্তের ব্যাপার। এখন আমাদর মতামত দিতে পারি কিন্তু সরানোর মূল এখতিয়ার সুপ্রিম কোর্টের বিষয়। আর বিএনপির এখন কে কি বলছে বুঝি না। খালেদা জিয়া বলছেন এক কথা, আবার মওদুদ আহমেদ বলেছেন ভিন্ন কথা। আমার সঙ্গে তার সুরের মধ্যে কোন সম্পর্ক নেই।

এসময় মন্ত্রীর সাথে উপস্থিত ছিলেন সড়ক ও জনপদ (সওজ) ঢাকা জোনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মো. আব্দুস সবুর, নারায়ণগঞ্জ সওজের নির্বাহী প্রকৌশলী আলিউল হোসেন, উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী আব্দুস সাত্তার, উপ-সহকারী প্রকৌশলী মো. সোহেল মাহমুদ ও হাছান ইমাম প্রমুখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here