সাংবাদিক ও মানবাধিকার কর্মী পরিচয়েও শেষ রক্ষা হলোনা প্রতারক সবুরের !

0
202

নিজস্ব প্রতিনিধি

যশোরের চৌগাছায় একাধিক প্রতারনা মামলার আসামী সবুরকে গ্রেফতার করেছে চৌগাছা থানা পুলিশ। দুটি মামলার সাজাপ্রাপ্তসহ (একটিতে দেড় বছর অপরটিতে ১বছর) ৯ টি মামলার আসামী সবুজ উপজেলার চুটারহুদা গ্রামের রওশন আলীর ছেলে।

বুধবার দুপুর ২টার দিকে সবুরকে উপজেলার কুঠিপাড়া গ্রাম থেকে গ্রেফতার করেছে চৌগাছা থানা পুলিশ।

থানা সূত্রে জানা যায়, মোট ৯টি প্রতারনা মামলার আসামী আব্দুস সবুর একজন চিহ্নিত প্রতারক। ইতিমধ্যে ২টি মামলার তার সাজা হয়েছে। এতোগুলো প্রতারনার মামলা নিয়ে পুলিশের হাত থেকে বাচতে সাংবাদিক ও মানবাধিকার কর্মী সাজেন সবুজ। কোনো মতেই তাকে গ্রেফতার করতে পারছিলনা পুলিশ। কিন্তু চৌগাছা থানার বেরসিক ওসি সাইফুল ইসলাম সবুজও নাছোড়বান্দা। তাই এতোগুলো মামলার আসামীকে ধরতে নতুন করে ফাদ পাতেন তিনি। তার সেই পাতা ফাদে ৯মার্চ আটকা পড়ে সবুজ।

ওসি সাইফুল ইসলাম সবুজের নির্দেশনা ও নেতৃত্বে থানার অপর দুজন চৌকশ পুলিশ কর্মকর্তা এসআই বিকাশ চন্দ্র সরকার ও এএসআই সুবেন্দু সবুরের মোবাইল ট্রাকিং শুরু করেন। অবশেষে বুধবার দুপুর ২টার দিকে এসআই বিকাশ ও এএসআই সুবেন্দু সবুরের কুঠিপাড়া বাড়ি থেকে দিকে তাকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারের সময় সবুরের মাজায় একটি সাংবাদিক ও একটি মানবাধিকার কর্মীর কার্ড ঝুলছিল বলে নিশ্চিত করেছেন এএসআই সুবেন্দু।

সবুরের গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন চৌগাছা থানার ওসি সাইফুল ইসলাম সবুজ।