নিখোঁজ স্যাটালাইট ট্রান্সমিটারবাহী কচ্ছপটি তালায় উদ্ধার

0
351

বি. এম. জুলফিকার রায়হান, তালা : গবেষনামূলক কাজের জন্য সুন্দরবনের করমজলে অবমুক্ত করা স্যাটালাইট ট্রান্সমিটারবাহী বিলুপ্তপ্রায় প্রজাতীর কচ্চপটি তালায় উদ্ধার হয়েছে। সোমবার সকালে তালা উপজেলার পাখিমারা বিল থেকে ১৫ কেজি ওজনের এই কচ্চপটি দোহার গ্রামের মৃত. শেখ নওশের আলীর ছেলে শেখ ওহাব উদ্দীন কপচ্চপটি উদ্ধার করেন।
স্থানীয় সূত্র জানায়, সোমবার সকাল ৮টার দিকে ওহাব উদ্দীন কপোতাক্ষ নদের টিআরএম ভূক্ত বালিয়া বিল থেকে বাড়ি ফেরার সময় একটি বেড়িবাঁধের পাশে কপচ্চপটি পায়। পরে তিনি কচ্ছপটি স্থানীয় শ্রীমন্তকাটি নতুন বাজার মৎস্য আড়ৎ-এ বিক্রির জন্য নিয়ে আসেন। এসময় এক ক্রেতার কাছে স্যাটালাইট ট্রান্সমিটারসহ কচ্চপটি ২ হাজার টাকা বিক্রিকালে বিষয়টি জানাজানি হয়ে যায়। পরে উৎসুক জনতা কচ্ছপটি দেখার জন্য মৎস্য আড়ৎ-এ ভিড় করে এবং একপর্যায়ে পুলিশকে অবহিত করে স্থানীয় জনতা। সংবাদ পেয়ে তালা খেশরা পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মো মাজেদ হাওলাদার কচ্ছপটি উদ্ধার করে তালা থানায় পাঠান।
তালা থানার ওসি মো. হাসান হাফিজুর রহমান জানান, স্যাটালাইট ট্রান্সমিটার সেট করা বিরল প্রজাতীর কচ্চপটি উদ্ধারের পর খুলনার বন বিভাগকে অবহিত করা হয়। দুপুরে খুলনার বন্য প্রাণি ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষন বিভাগের কর্মকর্তাদের নিকট সুস্থ্য কচ্চপটি হস্তান্তর করা হয়।
ওসি মো. হাসান হাফিজুর রহমান আরো বলেন, অষ্ট্রিয়ার একটি ওয়াইল্ড লাইফ সংগঠনের সহযোগীতায় বাংলাদেশে বিলুপ্তপ্রায় প্রাণি সংরক্ষনে একটি প্রকল্প বাস্তবায়িত হচ্ছে। প্রকল্পের আওতায় গত ১২ ফেব্রুয়ারী সুন্দরবনের করমজল থেকে দুটি বিলুপ্তপ্রায় বিরল বাতাগুর বাসকা জাতের কচ্চপের পিঠে স্যাটালাইট ট্রান্সমিটার সিস্টেম সেট করে সাগরে ছেড়ে দেয়া হয়। এই প্রজাতীর কচ্ছপের স্বভাব, খাদ্যাভ্যাস, বিচরণক্ষেত্র ও জীবনযাপন সম্পর্কে গবেষনার জন্য কচ্ছপ দু’টির পিঠে স্যাটেলাইট ট্রান্সমিটার সিস্টেম স্থাপন করা হয়। এদেরমধ্যে এই কচ্চপটি বঙ্গপোসাগর হয়ে কপোতাক্ষ নদের মাধ্যমে গত তালায় এসে ৩দিন ধরে গবেষকদের সাথে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন ছিল।
ওসি জানান, উদ্ধার হওয়া কচ্ছপের পিঠে একটি এন্টিনা এবং একটি জিপিএস ট্রাকার সিস্টেম সেট করা ছিল। এছাড়া কচ্ছপের পিঠে থাকা জিপিএস ট্রাকারের উপর লাগানো স্টিকারে আইডি ID 165337-PO 2791, PROJECT-BATAGUR-BASKA, VIENNA-ZOO, BANGLADESH-2016, STRTRACK.

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here