সাতক্ষীরা কালিগঞ্জ সড়কের বেহাল দশা ॥ দেখার কেউ নেই

0
331

ডিএম কামরুল ইসলাম সাতক্ষীরা প্রতিনিধি : সাতক্ষীরা কালিগঞ্জ সড়কের দুরবস্থার শেষ নেই। জেলার বিশ লক্ষাধীক জনসাধারনের যাতায়াত এবং যোগাযোগের একমাত্র সড়কটির দুরবস্থা আর জীর্নতার কারনে জনসাধারনের ভোগান্তীর শেষ নেই। সাতক্ষীরা কলিগঞ্জ, সড়কটি কেবল মাত্র সাতক্ষীরা জেলার জনসাধারনের যাতায়াত এবং যোগাযোগের মাধ্যম হিসেবে বিবেচিত তা নয় সড়কটি অর্থনৈতিক ভাবে যথাযথ ভূমিকা রেখে চলেছে। অপার সম্ভাবনাময় জেলা হিসেবে সাতক্ষীরার অবস্থান দিনে দিনে বিশেষ ক্ষেত্র বিস্তৃৃত করে চলেছে। গত কয়েক বছরে সাতক্ষীরা কালিগঞ্জ সড়কটি অর্থনৈতিক বুনিয়াদের কতটুকু ক্ষেত্র নিশ্চিত করেছে তা সহজেই অনুভব করা সম্ভব। দেশের বৈদেশিক মূদ্রা অর্জনের অন্যতম মাধ্যম সাদা সোনা খ্যাত চিংড়ীর উৎপাদনকারী জেলা হিসেবে সাতক্ষীরার অবস্থান দেশের শীর্ষে। বাংলাদেশ প্রতিবছর বিদেশের বাজারে চিংড়ী রপ্তানীর মাধ্যমে কোটি কোটি টাকার বৈদেশিক মুদ্রা উপার্জন করে থাকে। উক্ত চিংড়ী বাজারজাত করনে এবং রপ্তানীর ক্ষেত্রে পন্য পরিবহনে সাতক্ষীরা কালিগঞ্জ সড়কই একমাত্র অবলম্বন। অথচ সেই সাতক্ষীরা কালিগঞ্জ সড়কের প্রতিটি পরতে পরতে ভাঙ্গাচোরা, খানাখোন্দক জরাজীর্ণতাকে সঙ্গী করে পণ্য পরিবহনের ক্ষেত্রে অসাধারণ প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি করে চলেছে। দেশের অন্যতম স্থল বন্দর ভোমরা এবং ভোমরায় অবস্থান সাতক্ষীরা জেলায় হওয়ায় আমদানী রপ্তানী পন্য সাতক্ষীরা কালিগঞ্জ সড়ক দিয়েই পন্য পরিবহন হয়। প্রতিদিন সড়কটির ভাঙ্গা স্থানে একাধিক যানবাহন বিকল হয়ে পড়ে। অর্থনীতির সুচিকাগার এবং বুনিয়াদ সাতক্ষীরা জেলা আর সাতক্ষীরা কালিগঞ্জ সড়ক দেশের জাতীয় অর্থনীতির সাথে একাত্বতা ঘোষনা করেছে অথচ সেই সড়কের দুরবস্থা অসহনীয়, অর্থাৎ প্রতিনিয়ত যাত্রী সাধারণ, পরিবহনের চালক সহ জনসাধারণ বিরক্ত, বিড়ম্বনা আর বিরক্ত হচ্ছে তো হচ্ছেই।ংধঃ৭ বিশ্বের অনন্য অসাধারণ সৌন্দর্য্য আর সম্পদের অধিকারী আমাদের প্রিয় সুন্দরবন বিশ্ব সেবা নৈসঙ্গীক সুন্দরবন তথা ম্যানগ্রোভটির সৌন্দর্য অবলোকন পর্যটকদের উপস্থিতি বিশেষ ভাবে উল্লেখযোগ্য। সড়ক পথে সুন্দরবন ভ্রমনের একমাত্র মাধ্যম সাতক্ষীরা কালিগঞ্জ সড়ক। সড়ক পথে সুন্দরবন ভ্রমনের একমাত্র মাধ্যম সাতক্ষীরা কালিগঞ্জ সড়কটির জরাজীর্ণতা সুন্দরবন প্রেমীদের সুন্দরবন দর্শনের ক্ষেত্রে নিদারুন প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি করে চলেছে। সাতক্ষীরা চিংড়ী উৎপাদনের বিশেষ সফল হলেও কৃষিতেও এগিয়ে চলেছে। সাতক্ষীরা দৃশ্যতঃ বিভিন্ন ধরনের রবিশষ্যের উৎপাদনের উর্বরভূমি শাকসবজি সহ বিভিন্ন ধরনের রবিশস্য পরিবহনের ক্ষেত্রে সাতক্ষীরা কালিগঞ্জ সড়ক ব্যবহৃত হয়। পন্য পরিবহনের ক্ষেত্রে জরাজীর্ণ এবং খানাখোন্দকময় সড়কের জন্য পন্য পরিবহন খরচ যেমন বেশী পড়ে অনরুপ ভাবে যানবাহন ক্ষতিগ্রস্থ হয়। এবং তার বিরুপ প্রভাব পড়ে বাজার ব্যবস্থায়। সাতক্ষীরার বাস্তবতায় শহরের মধ্যের সড়কও বিশেষ দুরবস্থার সাথে বসবাস করছে। শহরের ব্যস্ততম সড়কের পরিস্থিতি এমন যে চার চাকার যানবাহন কেবল নয় দুই চাকার মোটর সাইকেল খানা খোন্দক স্পর্শ না করে গন্তব্যে যেতে পারে না। সাতক্ষীরার জন সাধারণনের দীর্ঘ দিনের প্রত্যাশা এবং দাবী সড়কটির সংস্কার কিন্তু সময়ের ব্যবধানে এবং বাস্তবতার নিরিখে সাতক্ষীরা কালিগঞ্জ সড়ক সংস্কারের উদ্যোগ নেই। সড়ক ও জনপথ বিভাগের দায়িত্ত্বহীনতার চরম নজির আর বাস্তবতার ফসল সাতক্ষীরা কালিগঞ্জ সড়ক। কেবল সাতক্ষীরা কালিগঞ্জ সড়ক নয় জেলার বিভিন্ন এলাকার সংযোগ সড়কগুলোর অবস্থাও করুন। মুমুর্ষ রোগীদের যাত্রীবাহী যানবাহন কেবল নয় এ্যাম্বুলেন্স নিলেও রোগী কাহিল হতে কাহিল হয়ে পড়ে। সাতক্ষীরায় রেল, নৌ বা বিমান পথ নেই, সড়ক পথই একমাত্র অবলম্বন এবং সাতক্ষীরা কালিগঞ্জ সড়কই তার প্রতিচ্ছবি আর তাই অবিলম্বে এই সড়কটি সংস্কার পরবর্তি জেলার লাখ লাখ মানুষের যাতায়াতের ক্ষেত্র নিশ্চিত করন এবং দেশের অর্থনীতির ভিত অধিকতর মজবুতের বিকল্প নেই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here