সাতক্ষীরা ভোমরা কাস্টমস এ্যাসোশিয়েসনের নেতাকে আটক পূর্বক ৮লাখ টাকায় মুক্তি দেওয়ায় ক্ষোভ

0
280
সাতক্ষীরা ভোমরা কাস্টমস এ্যাসোশিয়েসনের নেতাকে আটক পূর্বক ৮লাখ টাকায় মুক্তি দেওয়ায় ক্ষোভ

এম আর রকি যশোর : জেলা গোয়ন্দা শাখা (ডিবি) পুলিশের বিরুদ্ধে সাতক্ষীরা ভোমরা স্থল বন্দর কাস্টমস সিএন্ড এ্যাসোসিয়েশনের এক নেতাকে মাইক্রোবাস থেকে নামিয়ে নিয়ে ভয়ভীতি দেখিয়ে ৮ লাখ টাকায় মুক্তি দেওয়ার খবর পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ভোমরা কাস্টমস সিএন্ডএফ এ্যাসোশিয়েশন সংগঠনের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

ভোমরা কাস্টমস সিএন্ডএফ এ্যাসোশিয়েশন সূত্রে জানাগেছে,গত ১৭ মে বুধবার ওই সংগঠনের যুগ্ম সম্পাদক সাতক্ষীরা জেলার সদর উপজেলার লক্ষীদাঁড়ি গ্রামের বাসিন্দা ভোমরা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মৃত বাবু রনজিত কুমার ঘোষের ছেলে দিপংকর কুমার ঘোষ পাবনা থেকে নোহা মাইক্রোবাস যোগে ফিরছিল। সন্ধ্যায় মাইক্রোবাসটি যশোর পালবাড়ী মোড়ে পৌছালে জেলা গোয়েন্দা শাখা (ডিবি’) এসআই লুৎফর রহমান ( ঢাকা মেট্টো -৮৫৮৫) নং মাইক্রোবাসটিকে থামার সংকেত দেয়। থামার সাথে সাথে মাইক্রোবাসে বসে থাকা দিপংকরকে নামিয়ে যশোর জেলা গোয়েন্দা শাখা দপ্তরে আনা হয়। আনার পর তার হাতে হ্যান্ডকাপ পরিয়ে দিয়ে হুন্ডি,গোল্ডসহ বিভিন্ন অভিযোগ তুলে নির্যাতনের এক পর্যায় মোটা অংকের উৎকোচ দাবি করে। টাকা না দিলে অস্ত্র ও মাদক দিয়ে মামলা রুজু করে আদালতে চালান দেওয়ার ভয়ভীতি দেখায়। এক পর্যায় বৃহস্পতিবার দুপুরে সাতক্ষীরা জেলার ধনাঢ্য ব্যক্তি বিএনপি’র প্রভাবশালী সবুরের ছেলে সাহিদের কাছ থেকে এসআই লুৎফর রহমান নগদ ৮ লাখ টাকা গ্রহন করে দিপংকর কুমার ঘোষকে ছেড়ে দেয়। সূত্রটি আরো জানায়,দিপংকর কুমার ঘোষ ধরা পড়ার ব্যাপারে যশোরে কর্মরত পুলিশের এক কর্মকর্তা জেলা গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) পুলিশের কর্মকর্তার কাছে ছাড়ানোর ব্যাপারে খোঁজখবর নেন। ওই কর্মকর্তার সুপারিশকে তোয়াক্কা না করে গোপনের ৮লাখ টাকা এসআই লুৎফর রহমান গ্রহন করেন। শুক্রবার এসআই লুৎফর রহমানের কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি এড়িয়ে গিয়ে জেলা গোয়েন্দা শাখার অফিসার ইনচার্জের সাথে যোগাযোগ করতে বলেন। পরে অফিসার ইনচার্জের সরকারি মোবাইলে ফোন করা হলে একজন পুলিশ সদস্য রিসিভ করে জানান স্যার ব্যস্ত রয়েছেন বলে কেটে দেন। যার কারনে অফিসার ইনচার্জের বক্তব্য দেওয়া যায়নি। সূত্রগুলো জানিয়েছেন, দিপংকর কুমার ঘোষ জেলা গোয়েন্দা শাখা যশোর থেকে যাওয়ার পর ভোমরা কাস্টমস সিএন্ডএফ এ্যাসোশিয়েশনের নেতৃবৃন্দরা ডিবি’র এহেন কর্মকান্ডে ক্ষোভ প্রকাশ করেন। সংগঠনের সভাপতি রাজু ও সাধারণ সম্পাদক নাসিম ঘটনার প্রতিবাদে সভা করার সিদ্ধান্ত গ্রহন করেন। সভা থেকে প্রতিবাদ আকারে রেজুলেশনের মাধ্যমে যশোর জেলা গোয়েন্দা শাখা’র অবৈধ কর্মকান্ডের ব্যাপারে খুলনা রেঞ্জের ডিআইজি মহোদয়,খুলনা বিভাগীয় কমিশনার ও যশোর জেলা প্রশাসকের কাছে অভিযোগ দায়ের করবেন সংগঠনের পক্ষ থেকে। ভোমরা কাস্টমস এ্যাসোশিয়েশনের সভাপতি রাজু সাহেবের কাছে সাংবাদিক ফোন করলে তিনি সত্যতা স্বীকার করে পরে বলবেন বলে জানান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here