সুদের ব্যবসা বন্ধের দাবিতে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের উদ্দেশে ঝিনাইদহের সুজন বিশ্বাসের সাইকেল যাত্রা

0
242

জাহিদুর রহমান তারিক,ঝিনাইদহ: ‍নিজে ২০১২ সালে স্থানীয় এক ব্যক্তির কাছ থেকে সুদে ৬০ হাজার টাকা গ্রহণ করেন। সেই টাকা শোধ করতে করতে সুদ দিয়েছেন প্রায় ১ লাখ টাকা। এখনো আসল টাকা শোধ করতে পারিনি সুজন বিশ্বাস নামের এক কলেজ ছাত্র। বাবার আর্থিক সমস্যার কারণে এই সুদে টাকা নিয়েছিলেন তিনি। এই সুদ বা দাদন ব্যবসা বন্ধের দাবিতে সুজন বিশ্বাস তার বাইসাইকেলটি নৌকা বানিয়ে তাতে চেপে ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার জামাল ইউনিয়নের জয়নগর গ্রাম থেকে রওনা হয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর সাথে দেখা করার জন্যে। তিনি জনমত তৈরি করতে করতে প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার সাথে দেখা করতে চান। তিনি দাবি জানাবেন সারা বাংলাদেশ থেকে যেন সুদ প্রথা বন্ধ করা হয়।

সুজন বিশ্বাস জয়নগর গ্রামের মোহন বিশ্বাসের ছেলে ও স্থানীয় মাহতাব উদ্দিন ডিগ্রী কলেজের বিএ প্রথম বর্ষের ছাত্র। তিনি বুধবার দুপুরে একটি বাইসাইকেলে নৌকা তৈরি করে বুকে লাল সবুজের জামা পরে রওনা হয়েছে। ঝিনাইদহ-ঢাকা মহাসড়ক দিয়েই তিনি প্রধানমন্ত্রী বরাবর যাবেন বলে জানা গেছে। সুজন বিশ্বাস জানান, দেশের প্রত্যেকটি গ্রামে কিছু ব্যক্তি টাকার বিনিময়ে সুদ নিয়ে থাকে। তিনি জানান, এখন দেশের প্রতিটি গ্রামের মানুষের উন্নয়নের কথা বলে কিছু এনজিও ও ব্যক্তি সুদের বেড়াজালে আটকিয়ে ফেলছে। একবার কোনো ব্যক্তি এদের কাছ থেকে সুদে টাকা নিয়ে আর বের হতে পারছে না। তিনি নিজেও এর শিকার। তিনি আরো জানান, দাদন ব্যবসায়ীদের সুদের টাকা না দিতে পারলে মুখের খাবার পর্যন্ত কেড়ে নেয়। তাই তিনি দেশনেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে সারাদেশ থেকে সুদ ব্যবসা বন্ধের দাবি নিয়ে যাচ্ছেন। প্রধানমন্ত্রী তার সাথে দেখা করবেন ও কথা শুনবেন বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here