সুবর্ণযাত্রার সহযোগীতায় এবং নবচেতনার উদ্যোগে যশোরে ৫০০০ ফলজ গাছ উপহার

0
191

সংবাদবিজ্ঞপ্তি : স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তি উদযাপন উপলক্ষে বাংলাদেশের একদল উদ্যোমী তরুন সুদূর নরওয়ে থেকে সড়ক পথে যাত্রা শুরু করে প্রতিটি দেশে স্বাধীনতার বার্তা ও “যুদ্ধ নয় শান্তির বার্তা” তুলে ধরবে। পাশাপাশি পরবর্তী প্রজন্মের কাছে বাসযোগ্য পৃথিবী রেখে যাওয়ার জন্য পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষার আọাণ জানিয়ে ১৬ ডিসেম্বর জাতীয় স্মৃতিসৌধে এ অভিযাত্রার সমাপ্তি করবে। এ দীর্ঘ প্রায় ৪০ হাজার কিঃমিঃ পথ পাড়ি দেবার দুঃসাহসিক উদ্যোগের নামই হল “ সুবর্ণযাত্রা”।

সুর্বণযাত্রার কার্যক্রমের অংশ হিসাবে সুবর্ণযাত্রার সহায়তায় নবচেতনা মানবিক উন্নয়ন ফাউন্ডেশন বনায়নের কার্যক্রমের সহযোগী সংগঠন হিসাবে যশোর জেলার সদর উপজেলা এবং ঝিকরগাছা উপজেলাতে ২৫০০ স্কুলের ছাত্র-ছাত্রী এবং গ্রাম পর্যায় জনসাধারণদের ২ টি করে কলমের ফলজ গাছ প্রদান করে।

ঝিকরগাছা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিশেষ কারনে আসতে না পারায়, তিনি ফোনে শুভেচ্ছা জানান এবং তার প্রতিনিধি হিসাবে উক্ত অনুষ্ঠান উদ্বোধন করেন ইসমুত আরা পারভীন, উপজেলঅ শিক্ষা অফিসার ঝিকরগাছা। অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন মোছাঃ রেহেনা বানু, সহ-শিক্ষা অফিসার, মোঃ তারিকুল ইসলাম সহবারি ইনেসটেক্টর, প্রধান শিক্ষিকা মোছাঃ শাহানারা খাতুন, প্রধান শিক্ষিকা বারবাকপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়,ঝিকরগাছা, স্কুল কমিটির সভাপতি, নবচেতনা এবং সুবর্ণযাত্রার প্রতিনিধীগণ।

ইসমুত আরা পারভীন, উপজেলা শিক্ষা অফিসার ঝিকরগাছা বলেন, এ ধরনের কার্যক্রমের জন্য সুবর্ণযাত্রা এবং নবচেতনা সংগঠনকে ধন্যবাদ জানান। তিনি বলেন শৈশব হতেই প্রতিটি সন্তানের মাঝে বৃক্ষরোপন অভ্যাস গড়ে তুলতে সকলে কাজ করতে হবে, তবেই আমরা একটি সবুজ সুন্দর বাংলাদেশ গড়তে পারবো।
নবচেতনা ও সুবর্ণযাত্রার পক্ষে আমিনুল খান বাবু বলেন, আমরা ২০১০ হতে বনায়ন কার্যক্রম করে আসছি এবং এবছর সুবর্ণযাত্রার সহযোগীতায় বিপুল পরিমান বনায়ন করার পরিকল্পনা আছে। তিনি আরো বলেন জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব কমাতে হলে দেশে অবশ্যই ২৫% স্থায়ী বনভূমি নিশ্চিত করতে হবে, যে কারনেই সবুজকে স্থায়ী করতে সুবর্ণ যাত্রা এবং নবচেতনার এ ফলের গাছ দেবার প্রয়াস।
প্রধান শিক্ষিকা বারবাকপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় জানান, বাংলাদেশের স্বাধীনতার পক্ষে একটি লাল সবুজের পতাকা, একটুকরো মানচিত্র এবং সবুজ সুন্দর বাংলাদেশ গড়ার এ উদ্যোগের সহযাত্রী হতে পেরে আমরা গর্বীত । তিনি আশা করেন সবুজ প্রেমেিদর সংগঠন নবচেতনা সুবর্ণযাত্রার বনায়নের সহযোগী সংগঠন হিসাবে কাজ করে যাবে, তিনি অনুষ্ঠানের আয়োজক এবং সুবর্ণযাত্রার পরিচালনা কমিটিকে স্কুলের পক্ষ হতে ধন্যবাদ জানান।