সেনাবাহিনীকে চূড়ান্ত যুদ্ধ প্রস্তুতির নির্দেশ দিলেন শি জিনপিং

0
194

ম্যাগপাই নিউজ ডেস্ক : দ্বিতীয় মেয়াদে ক্ষমতায় এসে আরও আক্রমণাত্মক চেহারায় আত্মপ্রকাশ করলেন চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং। যে কোনও সময় যুদ্ধ বাধতে পারে সেনাবাহিনীকে চূড়ান্ত প্রস্তুতি নিয়ে রাখার নির্দেশ দিয়েছেন।

চীনের সরকারি টিভি চ্যানেল চায়না সেন্ট্রাল টেলিভিশনে (সিসিটিভি) দেশটির সেনাবাহিনীর সর্বাধিনায়ক বলেছেন, স্নায়ু টান টান করে সজাগ থাকতে হবে সেনাবাহিনীকে। দুনিয়াকে বুঝিয়ে দিতে হবে ২৩ লাখ সেনা নিয়ে বিশ্বের বৃহত্তম সেনাবাহিনী সবচেয়ে সেরা। তাই যে কোনও যুদ্ধ দ্রুত কীভাবে জেতা যায় সেদিকে মনোযোগ রাখুক সেনাবাহিনী। একবিংশ শতকে বিশ্বকে শাসন করুক চীনের অত্যাধুনিক সামরিক বাহিনী। এটাই চান চীনারা।

ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে যুদ্ধজয়ের ব্লু প্রিন্ট তৈরির প্রক্রিয়া। চূড়ান্ত সতর্কতা জারি হয়েছে। অত্যাধুনিক যুদ্ধকৌশল দ্রুত রপ্ত করতেও পরামর্শ দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট জিনপিং।

সেনাবাহিনীর শীর্ষ কর্তাদের নিয়ে বৈঠকের পর চীনা সেনার কাছে যুদ্ধ জয়ের প্রস্তুতির স্পষ্ট নির্দেশ পৌঁছে দিয়ে জিনপিং বলেছেন, অত্যাধুনিক যুদ্ধরীতি মহড়ার পাশাপাশি, দীর্ঘ প্রশিক্ষণের উপরেও জোর দিক সেনাবাহিনী।

বিশেষজ্ঞদের মতে, সম্প্রতি দক্ষিণ কোরিয়ায় শক্তিশালী রাডার বিশিষ্ট মার্কিন থাড (টার্মিনাল হাই অল্টিচ্যুড এরিয়া ডিফেন্স) ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরোধী ব্যবস্থার মোকাবিলা করতেই চীনের এই উদ্যোগ। বাহিনীর ভেতর থেকেই তৈরি করা হয়েছে ৮৪টি বিশেষ ক্ষমতা সম্পন্ন সেনা ইউনিট। উপগ্রহ ও সুপার কম্পিউটার প্রযুক্তির সঙ্গে সমন্বয় সাধন করে ইউনিটগুলি যুদ্ধ করবে।

প্রসঙ্গত, দক্ষিণ চীন সাগর, ওয়ান বেল্ট ওয়ান রোড (ওবোর), সীমান্ত সমস্যা এবং উত্তর কোরিয়া-সহ একাধিক ইস্যু নিয়ে চীন এখন ভারত, আমেরিকা, জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া, অস্ট্রেলিয়া-সহ বিশ্বের এক ডজনের বেশি দেশের সঙ্গে সরাসরি সংঘাতে জড়িয়েছে। অনেক দিন আগেই লাগাতার সামরিক মহড়ার মাধ্যমে দক্ষিণ চীন সাগরে যুদ্ধ পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। এই অবস্থায় জিনপিংয়ের পক্ষ থেকে সেনাবাহিনীকে যুদ্ধের জন্য তৈরি থাকতে বলাটা ইঙ্গিতবাহী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here