স্বর্ণজয়ী রুশ অ্যাথলিটকে ঘিরে ডোপ বিতর্ক

0
95

অনলাইন ডেস্ক : বয়স মোটে ১৫ বছর। এরইমধ্যে কামিলা ভালিয়েভা গোটা ক্রীড়া দুনিয়ার নজর কেড়েছেন। ফিগার স্কেটিংয়ে জুনিয়র ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপ, ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপ আর সবশেষ বেইজিংয়ের শীতকালীন অলিম্পিকে স্বর্ণজয়ী তিনি। তবে বিতর্কের ঝড় উঠেছে শেষ পদকটি ঘিরে।

২৫ ডিসেম্বর রাশিয়ান ফিগার স্কেটিং চ্যাম্পিয়নশিপে ডোপ পরীক্ষার জন্য নমুনা দেন ভালিয়েভা। সুইডেনের স্টকহোমে ওয়ার্ল্ড অ্যান্টি-ডোপিং এজেন্সিতে পাঠানো সেই নমুনার ফলাফল ঘোষণা করা হয়েছে মঙ্গলবার। তাতে ক্রীড়া দুনিয়ায় নিষিদ্ধ ট্রাইমেটাসিডিন পজিটিভ হয়েছেন তিনি। অথচ ঠিক তার আগের দিনই রাশিয়াকে স্বর্ণ এনে দিয়েছিলেন তিনি।

এই খবর ছড়িয়ে পড়লে নিন্দার ঝড় উঠে বিশ্বজুড়ে। ফিগার স্কেটিংয়ের জার্মান তারকা কাটারিনা ভিট ফেসবুকে লিখেছেন, এটা লজ্জাজনক এবং (রাশিয়ার) দায়িত্বশীল প্রাপ্তবয়স্কদের এই ক্রীড়া থেকে আজীবন নিষিদ্ধ করা উচিত।’’
রাশিয়া অলিম্পিক কমিটির দাবি, জানুয়ারিতে ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে অংশ নেয়ার জন্য দেয়া পরীক্ষাতেও নেগেটিভ ছিলেন ভালিয়েভা। এক প্রতিক্রিয়ায় ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ শুক্রবার বলেছেন, তাদের বিশ্বাস ভালিয়েভার পজিটিভ ফলাফলে ভুল আছে। তিনি ভালিয়েভাকে ভিডিও কনফারেন্সে বলেন, ‘‘তোমার মাথা উঁচু রাখো। তুমি একজন রাশিয়ান। গর্বের সঙ্গে এগিয়ে যাও ও সবাইকে হারিয়ে দাও।’’

রুশ অলিম্পিক কমিটির প্রেসিডেন্ট স্তানিসলাম পজ্দনিয়াকভ সুইডেনের ডোপ পরীক্ষার প্রক্রিয়া নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। তিনি মনে করেন, পদকপ্রাপ্তির পর ডোপের ফলাফল ঘোষণা উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। ফলাফল ঘোষণায় এত দীর্ঘ সময় লাগার কারণ নিয়েও সন্দেহ তার। তবে এই দেরির কারণ কী তা এখনও জানা যায়নি।

বিতর্ক এখন আটকে আছে কোর্ট অফ আরবিট্রেশন ফর স্পোর্টে। অলিম্পিক কমিটির একজন মুখপাত্র বলেছেন, তারা চান যত দ্রুত সম্ভব এর সমাধান আসুক। সে পর্যন্ত পদকও দেয়া হবে না কাউকে।

এদিকে ১৫ ফেব্রুয়ারি ব্যক্তিগত ইভেন্টে ভালিয়েভার অংশ নেয়ার কথা রয়েছে। তার আগেই শুনানি শুরুর কথা রয়েছে। সূত্র : ডয়চে ভেলে