স্বাক্ষর জালিয়াতি, উপবৃত্তি ও গাছ বিক্রির টাকা আত্মসাৎ পাইকগাছায় প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে ১৩ অভিযোগের বিভাগীয় তদন্ত সম্পন্ন

0
267

পাইকগাছা প্রতিনিধি : পাইকগাছায় স্বাক্ষর জাল করে এক সহকারী শিক্ষকের বার্ষিক গোপনীয় প্রতিবেদন তৈরী, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের গাছ বিক্রির অর্থ লোপাট ও উপবৃত্তির টাকা আত্মসাৎ সহ কপিলমুনি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ নুরুজ্জামানের বিরুদ্ধে আনীত ১৩ অভিযোগের তদন্ত সম্পন্ন হয়েছে। গতকাল শনিবার উপজেলা পরিষদের হলরুমে দিনব্যাপী সংশ্লিষ্টদের উপস্থিতিতে তদন্ত কমিটির আহবায়ক সহকারী জেলা প্রাথমিক অফিসার মোঃ তবিবুর রহমানের নেতৃত্বে এ তদন্ত কাজ সম্পন্ন হয়। সময় জেলা সদরের শিক্ষা অফিসার শিহাব আমীন, পাইকগাছা উপজেলা শিক্ষা অফিসার মোঃ সাইফুল ইসলাম সহ বিভিন্ন বিদ্যালয়ের প্রধান ও সহকারী শিক্ষকরা উপস্থিত ছিলেন। দেলুটির মধুখালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বাবুল আক্তার জানান, তিনি যখন কপিলমুনির গোলাবাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের দায়িত্বে ছিলেন সে সময় আমার স্বাক্ষর প্রধান শিক্ষক নুরুজ্জামান জালিয়াতি করে এ প্রতিষ্ঠানের সহকারী শিক্ষক খুরশিদা বেগমের বার্ষিক গোপনীয় প্রতিবেদক (এসিআর) তৈরী করেন। এ ছাড়া ক্ষমতার প্রভাব খাটিয়ে মোঃ নুরুজ্জামান বি.বি শ্যামনগর ও রেজাকপুরের প্রধান শিক্ষকের দায়িত্বপালন কালে তিনি গাছ বিক্রির ৩০ হাজার টাকা ও টেন্ডারকৃত গাছ গোপনভাবে বিক্রি করে এ টাকা আত্মসাৎ করেন। এছাড়া তিনি কপিলমুনির প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব পালনকালে ২০১৫-১৬ অর্থ বছরের শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তির ২৪ হাজার টাকা আত্মসাৎ সহ ভর্তি ফি বাবদ শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে টাকা হাতিয়ে নেন বলে অভিযোগ রয়েছে। ১৩ অভিযোগের ঘটনায় প্রধান শিক্ষক বাবুল আক্তার, হরিঢালীর প্রধান শিক্ষক প্রসেনজিত, রহিমপুরের নজরুল ইসলাম, সহকারী শিক্ষক সাঈদ, লক্ষ্মীখোলার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের আলমগীর সহ একাধিক প্রধান ও সহকারী শিক্ষক, প্রধান শিক্ষক নুরুজ্জামানের বিরুদ্ধে জেলা শিক্ষা অফিসার সহ বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ করেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে শনিবার এ তদন্ত কাজ সম্পন্ন হয়। এ বিষয়ে সহকারী জেলা শিক্ষা অফিসার তবিবুর রহমান বলেন, তদন্তকাজ শেষ না হওয়া পর্যন্ত কোন মন্তব্য করা ঠিক হবে না। তবে প্রত্যেক স্কুলে সরেজমিনে গিয়ে তদন্ত কাজ সম্পন্ন করা হবে বলে নিশ্চয়তা দেন এবং এ অভিযোগ প্রমাণিত হলে তার বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here