হামলা নয়, বোমাবহনের সময় বিস্ফোরণ: ডিএমপি কমিশনার

0
223

নিজস্ব প্রতিবেদক : ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন ডিএমপি কমিশনারহযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের অদূরে পুলিশ চেকপোস্টের সামনে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ ও একজন নিহতের ঘটনা প্রসঙ্গে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া বলেছেন, ‘এটি আত্মঘাতী হামলা নয়, এটি বিস্ফোরণ। পুলিশের তৎপরতায় বোমা বহনকারী অতিরিক্ত সতর্ক হতে গিয়ে বোমার বিস্ফোরণ হয়েছে।’ রাত সাড়ে ৯টায় ঘটনাস্থল পরিদর্শনে গেলে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, ‘অতিরিক্ত সতর্কতা অবলম্বন করতে গিয়ে বিস্ফোরণ হতে পারে। এ ঘটনায় পুলিশ ও সাধারণ জনগণ কেউ আহত হয়নি।’

তিনি বলেন, ‘এখানে যেহেতু চেকপোস্ট রয়েছে তাই সবাইকে তল্লাশির মধ্য দিয়ে এদিক দিয়ে যেতে হয়। তাই অতিরিক্ত সতর্কতার কারণে এ বিস্ফোরণ হতে পারে। এটি কোনও হামলার ঘটনা নয়।

ডিএমপি কমিশনার বলেন, ‘যুবকটি দক্ষিণ দিক থেকে উত্তরদিকে হেটে যাচ্ছিল। ঘটনাস্থল থেকে কিছু সামনে অন্তত ২০ জন পুলিশ সদস্য ছিল। সে হামলাকারী হলে তাদের ওপর আক্রমণ করতে পারতো। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে সে বিস্ফোরকটি বহন করে নিয়ে যাচ্ছিল।’

নিরাপত্তার ব্যবস্থা সম্পর্কে আছাদুজ্জামান বলেন, ‘আমাদের যথেষ্ঠ নিরাপত্তা ব্যবস্থা রয়েছে। গত ৭-৮ মাসে কোনও পুলিশ সদস্য বা সাধারণ জনগণের কোনও হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। ঢাকা মহানগরীতে প্রতিটি এলাকায় চেকপোস্ট রয়েছে। আমরা সতর্ক আছি। এখানে আর নাশকতা করা সম্ভব নয়। আতঙ্কিত হওয়ারও কিছু নেই।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে ডিএমপি কমিশনার বলেন, ‘সে বিস্ফোরকটি বহন করে কোথায় নিয়ে যাচ্ছিল তা তদন্তের মাধ্যমে জানা যাবে।’

জঙ্গি হামলা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘হলি আর্টিজানের পর আমাদের গোয়েন্দা বিভাগ অনেক তৎপর হয়ে কাজ করছে। এটি একটি বৈশ্বিক সমস্যা। এটার প্রভাব আমাদের এখানেও রয়েছে। আমরা কঠোরভাবে তা নিয়েন্ত্রণ করেছি।

আজ শুক্রবার সন্ধ্যার পরে রাজধানীর হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের সামনে পুলিশের চেকপোস্টের পাশেই এক আত্মঘাতী বিস্ফোরণে একজন নিহত হয়েছে। শক্তিশালী এ বিস্ফোরণে আত্মঘাতী ওই ব্যক্তির শরীর পেট বরাবর দ্বিখণ্ডিত হয়ে প্রায় বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। তার আনুমানিক বয়স ২৫ বছর। ঘটনাস্থলে একটি ট্রাভেল ব্যাগও পাওয়া গেছে। সিআইডি’র ক্রাইম সিন, কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট, পুলিশের বোম ডিসপোজাল ইউনিটসহ পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে উপস্থিত রয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here