১৫০ কোটি ৩১ লাখ টাকার উপহার নিয়ে মাগুরায় প্রধানমন্ত্রী

0
346

মাগুরা থেকে: একগুচ্ছ উন্নয়ন কাজ ‍উপহার নিয়ে বিকেলে মাগুরা আসছেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রীকে বরণ করতে অপেক্ষা করছেন মাগুরাবাসী। এ উপলক্ষে নতুন সাজে সেজেছে মাগুরা শহর।

মঙ্গলবার (২১ মার্চ) বিকেলে প্রধানমন্ত্রী মাগুরা স্টেডিয়ামে স্থানীয় আওয়ামী লীগের জনসভা থেকে ১৯টি উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন ও ৯টির ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন।

প্রধানমন্ত্রীর আগমন উপলক্ষে মাগুরা শহরে উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে। তোরণের পাশাপাশি সরকারের উন্নয়ন কাজ তুলে ধরে বানানো ডিজিটাল ব্যানার, ফেস্টুনে ভরে গেছে গোটা এলাকা।

জনসভা সফল করতে ব্যাপক গণসংযোগ চালিয়েছে আওয়ামী লীগ। মাগুরার পাশাপাশি আশপাশের জেলাগুলো থেকে জনসভায় অংশ নেবে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীসহ বিভিন্ন শ্রেণীপেশার মানুষ। প্রধানমন্ত্রীর সফর উপলক্ষে গোটা এলাকা নিরাপত্তা চাদরে ঢেকে ফেলেছে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।

প্রধানমন্ত্রীর প্রেস উইং জানায়, সকালে রাজধানীতে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদ (এনইসি) ভবনে একনেক মিটিং শেষে দুপুর ১টার দিকে হেলিকপ্টারে মাগুরার যাবেন প্রধানমন্ত্রী। দুপুরে সার্কিট হাউজে নামাজ ও মধ্যাহ্ন বিরতির পর আড়াইটার দিকে জনসভা মাঠে যাবেন তিনি।

১৫০ কোটি ৩১ লাখ টাকা ব্যয়ে সম্পন্ন হওয়া উদ্বোধনের তালিকায় থাকা ১৯টি উন্নয়ন কাজের মধ্যে রয়েছে- মাগুরা কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র, মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবন, মাগুরা ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতাল, মাগুরা জেলার শ্রীপুর ও মহম্মদপুর উপজেলা ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশন, সদর উপজেলার মঘি ইউপি অফিস থেকে আন্দোলবাড়িয়া সড়কে ফটকী নদীর ওপর ১০০ দশমিক ১০ মিটার ব্রিজ, সদর উপজেলার জিসি-ইছাখাদা আর অ্যান্ড এইচ পর্যন্ত ৯ দশমিক ৭১ কিলোমিটার সড়ক, মাগুরা-শ্রীপুর সড়কে নতুন বাজার সেতু, ৩৫০ ঘন মিটার প্রতি ঘণ্টা ক্ষমতা সম্পন্ন মাগুরা ভূ-গর্ভস্থ পানি শোধনাগার, মুক্তিযোদ্ধা আছাদুজ্জামান স্টেডিয়াম, সরকারি হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজের প্রশাসনিক ভবন, আঞ্চলিক হাঁস প্রজনন খামারের প্রশিক্ষণ ভবন ও অতিথিশালা, আওয়ামী লীগ কার্যালয় মাগুরা জেলা শাখা, শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সকে ৫০ শয্যায় উন্নীতকরণ, শালিখা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সকে ৫০ শয্যায় উন্নীতকরণ, মাগুরা টেক্সটাইল মিলস, আড়পাড়া মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্র ও মাগুরা পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট।

এছাড়া ১৭৭ কোটি ১১ লাখ টাকার ৯টি উন্নয়ন কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন প্রধানমন্ত্রী।

এগুলোর মধ্যে রয়েছে আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস মাগুরা, শালিখা উপজেলার বুনাগাতি থেকে বেরোইলপলিতা সড়কে নালিয়াঘাটে ফটকী নদীর ওপর ৯৬ মিটার ব্রিজ, একই উপজেলার বরইচারা আটিরভিটা-বরইচারা বাজার সড়কে ফটকী নদীর ওপর ৬৬ মিটার ব্রিজ, বাউলিয়া-শরশুনা সড়কে চিত্রা নদীর ওপর ৯৬ মিটার ব্রিজ, জাতীয় মহাসড়কের মাগুরা শহর অংশ ৪ লেনে উন্নীতকরণ, মাগুরা পৌরসভার তৃতীয় নগর পরিচালন ও অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্প (দ্বিতীয় পর্যায়), শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং ও ইনকিউবেশন সেন্টার (হাইটেক পার্ক), শ্রীপুর উপজেলা মিনি স্টেডিয়াম, শালিখা উপজেলা মিনি স্টেডিয়াম।

এর আগে ১৯৯৮ ও ২০০৮ সালে মাগুরা আসেন বঙ্গবন্ধু কন্যা।

প্রধানমন্ত্রীর সহকারী একান্ত সচিব অ্যাডভোকেট সাইফুজ্জামান শিখর জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আগমন উপলক্ষে সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীকে বরণ করে নিতে মাগুরাবাসী অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছেন।

তিনি বলেন, ২০০৮ সালে মাগুরা আদর্শ কলেজের জনসভায় শেখ হাসিনা মাগুরার উন্নয়নের দায়িত্ব নিয়ে যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন তার সবই তিনি পূরণ করছেন।

মাগুরা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পঙ্কজ কুণ্ডু বলেন, এ জেলা আওয়ামী লীগের একটি শক্ত ঘাঁটি হিসেবেও পরিচিত। প্রধানমন্ত্রীকে বরণ করতে মাগুরাবাসী উন্মুখ হয়ে আছে। মাগুরার জনসভাটি স্মরণকালের একটি মহাসমাবেশে রূপ নেবে।

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি তানজেল হোসেন খান বলেন, প্রধানমন্ত্রীর আগম উপলক্ষে জেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলে দলীয় সভা সমাবেশের মাধ্যমে ব্যাপক গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে।

এদিকে, মাগুরায় প্রধানমন্ত্রীর সফরের নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা দিতে তিনস্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা গড়ে তোলা হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় পুলিশ প্রশাসন।

মাগুরা পুলিশ সুপার মো. মুনিবুর রহমান বলেন, পুলিশের নিজস্ব নিরাপত্তা ব্যবস্থার পাশাপাশি সরকারের সব গোয়েন্দা সংস্থা ও বিশেষ বাহিনীর সঙ্গে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রয়েছে। মাগুরার পাশাপাশি বিভিন্ন জেলা থেকে বিপুলসংখ্যাক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here