২৫ মার্চ পর্যন্ত দাবদাহ : তারপর কালবৈশাখি

0
108

নিজস্ব প্রতিবেদক : চলছে বসন্তকাল। তারপেরেও প্রকৃতির বিরূপতায় মৌসুমের প্রথম দাবদাহ চলছে; যা তৃতীয় দিনের মতো সারাদেশের সাথে যশোরেও বয়ে যাচ্ছে। এই অবস্থা আরও দুইদিন অর্থাৎ ২৫ মার্চ পর্যন্ত বইতে পারে। তারপর থেকে তাপমাত্রা কমতে পারে। ২৭, ২৮ ও ২৯ মার্চ সারাদেশে বৃষ্টিসহ কালবৈশাখি হতে পারে। যশোরে মঙ্গলবার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৭ দশমিক ২।

আবহাওয়া অফিসসূত্রে জানা গেছে, ‘এই তাপপ্রবাহ ২৫ মার্চ পর্যন্ত থাকতে পারে। ২৬ মার্চ থেকে তাপমাত্রা কমতে শুরু করবে। তারপর ধীরে ধীরে তাপ কমবে। বিশেষ করে ২৭, ২৮, ২৯ মার্চ ভালো বৃষ্টি হতে পারে। কালবৈশাখি হওয়ার সম্ভাবনা আছে। সারাদেশেই কমবেশি ঝড়বৃষ্টি হতে পারে। তাপমাত্রা বেড়ে গেছে, এ জন্য কালবৈশাখি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।’

মঙ্গলবার তাপ প্রবাহের পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, ঢাকা, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগসহ রাজশাহী ও পাবনা অঞ্চল এবং নীলফামারী জেলার উপর দিয়ে মৃদু তাপ প্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকতে পারে। সোমবার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে সীতাকু-ে ৩৮ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আর ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে ৩৬ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

সকাল ৯টা পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারাদেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে। সারাদেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা সামান্য বৃদ্ধি পেতে পারে। তার পরের ৩ দিন আবহাওয়ার সামান্য পরিবর্তন হতে পারে বলেও জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস। লঘুচাপের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে।