তরুণ শিক্ষার্থীদের মনে নাট্যপ্রেমের বীজ বপন

0
341

নিজস্ব প্রতিবেদক : সূর্যোদয়ের সাথে সাথে নতুন উদ্যোমে ভালো কিছুর প্রত্যয়ে একে একে হাজির শ’খানেক তরুণ। তাদের আনন্দ হৈ হুল্লোড় আর আড্ডায় উঁচু ডালের কচি পাতা থেকে নীচের ঘাসেও যেন আনন্দের শিহরণ বয়ে যায়। এ এক ব্যতিক্রমী আয়োজন। ছুটির দিনে শুক্রবার যশোর সরকারি এমএম কলেজ ক্যাম্পাস জুড়ে চলে কর্মযজ্ঞ। যে আয়োজনের প্রধান উদ্দেশ্য কিশোর ও তরুণ শিক্ষার্থীদের মনে নাট্যপ্রেমের বীজ বপন। ক্যাম্পাস থিয়েটার আন্দোলন যশোর জেলা সংসদের উদ্যোগে দিনব্যাপী চলে এ থিয়েটার ক্যাম্প ও সাংগঠনিক কর্মশালা।
যশোরের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শতাধিক শিক্ষার্থী এ ক্যাম্পে অংশ নিয়ে নাটক সম্পর্কে প্রাথমিক ধারণা অর্জন করেন। সারাদিনের আয়োজনে ধরাবাধা কোনো অনুসরণীয় তালিকা না থাকলেও বিভিন্ন ভাগে বিভক্ত কর্মশালায় কথায়, গল্পে অংশগ্রহণকারীরা অভিনয়, অভিনয় শৈলী, ডিসিপ্লিন, জীবনে নাটকের গুরুত্বের বিষয়ে জেনেছে। শুনেছে নাটক আবৃত্তি কিংবা সুষ্ঠু সংস্কৃতি চর্চা ও এর প্রচার প্রসারে নিবেদিত প্রাণ বিশিষ্টজনদের ভাবনা ও স্বপ্নের কথা। সার্বিক কর্মশালা পরিচালনা করেন ক্যাম্পাস থিয়েটার আন্দোলন যশোর জেলা সংসদের সাধারণ সম্পাদক কামরুল হাসান রিপন।
রিপন জানান, ক্যাম্পাস থিয়েটার আন্দোলন বাংলাদেশ ২০১৫ সালের ২৫ নভেম্বর যাত্রা শুরু করে। নাট্য আন্দোলনের মাধ্যমে বাংলাদেশের কিশোর ও তরুণ শিক্ষার্থীদের সৃজনশীল, মানবিক, সংস্কৃতিমনস্ক ও দেশপ্রেমিক নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে এ সংগঠনের প্রয়াস অব্যাহত আছে। চলতি বছরের এপ্রিলে যশোর জেলা কমিটির অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এর মধ্যেই কয়েকটি কার্যক্রম পরিচালিত হলেও এটিই তাদের বড় পরিসরের আয়োজন। নতুন সংস্কৃতি কর্মী, অভিনেতা, নাট্যকার ও নির্দেশক তৈরির মাধ্যমে জাতীয় সংস্কৃতি অঙ্গনকে সমৃদ্ধ করার যে দায়িত্বশীল প্রয়াস; এ আয়োজনের মাধ্যমে যশোরে তারা তার বীজ বপন করলেন। কর্মশালায় বিভিন্ন পর্বে একশ’ ৪০ জন অংশগ্রহণ করেন বলে জানান তিনি।
দিনব্যাপী চলা এ ক্যাম্পে আয়োজক সংগঠনের কার্যনির্বাহী কমিটির নেতৃবৃন্দসহ যশোরের সাংস্কৃতিক ও সামাজিক অঙ্গনের বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ বিভিন্ন সময়ে উপস্থিত হন। অংশগ্রহণকারীরা তাদের বিশেষভাবে শ্রদ্ধা জানিয়ে বরণ করে নেন। অতিথিবৃন্দ বলেন, এ কর্মশালা সংস্কৃতিমনা শিক্ষার্থীদের একত্রিত করতে এবং নাটকের প্রতি আগ্রহ বাড়াতে বিশেষ ভূমিকা রাখবে। যশোর সংস্কৃতি চর্চা ও নাটকের মাধ্যমে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে নিজেদের অবস্থান জানান দিয়েছে। আগামীতেও তা অব্যাহত থাকবে বলে প্রত্যয় ব্যক্ত করে অতিথিরা বলেন, শুরুতে নানা অসঙ্গতি বা সীমাবদ্ধতা থাকতে পারে। তবে, এ সংগঠনের সদস্যদের নিয়ে তারা আশাবাদী। ক্যাম্পে অংশগ্রহণকারীরা তাদের মেধা ও পরিশ্রম দিয়ে একদিন এ সংগঠনকে আরও বেশি সুদৃঢ় ও গতিশীল করে তুলবে।

থিয়েটার ক্যাম্পে অতিথি হিসেবে যোগদান করেন যশোর জেলা শিল্পকলা একাডেমির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মাহমুদ হাসান বুলু, সুরধুনীর সভাপতি হারুন অর রশীদ, চাঁদের হাটের সভাপতি ফারাজী আহমেদ সাঈদ বুলবুল, জেলা সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সাবেক নেতা তরিকুল ইসলাম তারু, নন্দন যশোরের সাধারণ সম্পাদক ডি এইচ দিলশান মহিলা পরিষদ নেত্রী ফারদীনা রহমান অ্যানি, নাট্য ব্যক্তিত্ব আব্দুল আফফান ভিক্টর প্রমুখ।