‘অপহরণ’-এর ৭ মাস পর নিজের বাসায় ডা. ইকবাল

0
265

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি: রাজধানীর সাইন্স ল্যাবরেটরি মোড় থেকে চাঞ্চল্যকর অপহরণের সাড়ে ৭ মাস পর অবশেষে বাসায় ফিরলেন কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ডা. ইকবাল মাহমুদ। বুধবার রাত সোয়া ১১টার দিকে তিনি লক্ষ্মীপুরের নিজ বাসায় পৌঁছন বলে জানান তার পরিবার। এর আগে ডা. ইকবালকে চোখ বাঁধা অবস্থায় লক্ষ্মীপুর -ঢাকা মহাসড়কের কোন এক স্থানে দুর্বৃত্তরা ফেলে রেখে গেছে বলে জানান তারা।

ডা. ইকবাল মাহমুদ এর বাবা মুক্তিযোদ্ধা একে এম নুরুল আলম বলেন, “গত ১৪ অক্টোবর শুক্রবার রাতে আমার ছেলে ডা. ইকবাল মাহমুদকে একটি মাইক্রেবাসযোগে রাজধানীর সাইন্স ল্যাবরেটরি মোড় থেকে অপহরণ করা হয়। বহু খোঁজাখুজি করে তার সন্ধান পায়নি। হঠাৎ বুধবার রাতে আমাদের লক্ষ্মীপুরের বকুল কটেজের বাসায় ফিরেন সে। পরে জানতে পারলাম চোখ বাঁধা অবস্থায় তাকে লক্ষ্মীপুরের কোনো এক স্থানে ফেলে রেখে গেছে দুর্বৃত্তরা।

এদিকে, অপহৃত সন্তানকে জীবিত পাওয়ায় প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্টমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়ে পরিবারের সবাই এখন খুশি বলে জানান এই মুক্তিযোদ্ধা।

নুরুল আলম আরও জানান, অপহরণের পর থেকে ইকবালকে চোখ বাঁধা অবস্থায় একটি ছোট ঘরে ফেলে রাখা হতো। ৭ মাস ১৭ দিন চোখ বাঁধা অবস্থায় ছিল সে। চোখ বাঁধা অবস্থায় তাকে খাওয়া-ধাওয়া দেওয়া হলেও এখন সে শারীরিকভাবে অসুস্থ। তাই গণমাধ্যমকর্মীদের সঙ্গে তার সাক্ষাৎ করা সম্ভব হয়নি।

প্রসঙ্গত, গত ১৪ অক্টোবর শুক্রবার রাতে ইকবাল মাহমুদ লক্ষ্মীপুরের বাসা থেকে ঢাকার উদ্দেশে রওয়ানা হয়ে ভোররাত ৩টা ১০ মিনিটে ঢাকার সায়েন্স ল্যাবরেটরি মোড়ে আড়ংয়ের সামনে বাস থেকে নামেন। এ সময় কয়েকজন তাকে জোর করে একটি মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে যায়। ডা. ইকবাল বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রশিক্ষণরত ছিলেন। পরে খবর পেয়ে পরিবার লক্ষ্মীপুর থেকে ঢাকায় এসে ১৬ অক্টোবর ধানমন্ডি থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। পরে পুলিশের মাধ্যমে আড়ংয়ের সিসি ক্যামেরায় ধারণ করা ভিডিও ফুটেজ সংগ্রহ করা হয়। সেখানে তাকে মাইক্রোবাসে করে তুলে নিয়ে যেতে দেখা যায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here