এবার মাগুরায় জঙ্গি সন্দেহে জামায়াত নেতার বাড়ি ঘেরাও, গ্রেফতার ৮ দুই মামলা দায়ের

0
375

মাগুরা প্রতিনিধি: শুক্রবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে পুলিশ মাগুরা জেলার শালিখার উপজেলার আড়পাড়ায় জঙ্গি সন্দেহে জামায়াত নেতা অ্যাডভোকেট ফরিদ হোসেনের বাড়ি ঘেরাও করে অভিযান চালিয়ে বাড়ির মালিক জামায়াত নেতা অ্যাডভোকেট ফরিদ হোসেন এবং বাচ্চু , ওবায়দুল, আবুল বাশার, রবিউল, জাহিদুল, আনোয়ার, জাহাঙ্গীর এই ৮জনকে আটক করা হয়েছে। এদের কাছ থেকে বেশ কিছু জিহাদি, বই বাল্ভ তৈরির ডিভাইস, ২টি পিতলের বড় মূর্তিসহ কয়েকটি ছোট মূর্তি, জাল টাকা তৈরির সরঞ্জাম উদ্ধারের ঘটনায় শালিখা থানায় দুটি পৃথক মামলা দায়ের হয়েছে।

শালিখা থানার এস আই আশিকুল ইসলাম বাদী হয়ে এই মামলা দুটি দায়ের করেন। বাড়ির মালিক জামায়াত নেতা অ্যাডভোকেট ফরিদ হোসেনের বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইনে এবং অন্য ৭জনের বিরুদ্ধে ৫৪ ধারায় পৃথক দুটি মামলা হয়েছে। ৭জনের বাড়ি ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার পীরের চর গ্রামে। বাড়ির মালিক জামায়াত নেতা অ্যাডভোকেট ফরিদ হোসেনের বাড়ি মাগুরার আড়পাড়ায়।

মাগুরার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. তরিকুল ইসলাম জানান, বাড়ির মালিক জামায়াত নেতা অ্যাডভোকেট ফরিদ হোসেনের বাড়ি থেকে জেহাদি বইসহ জাল টাকা তৈরির নানা সামগ্রী উদ্ধার হওয়ায় তার বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইনে এবং অন্য ৭জনের বিরুদ্ধে ৫৪ ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। ৭জনের বাড়ি ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার পীরের চর গ্রামেসহ বিভিন্ন এলাকায় খোঁজ নিয়ে তাদের বিরুদ্ধে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

উল্লেখ্য, জঙ্গি সন্দেহে জামায়াতের জেলা পর্যায়ের নেতা ও মাগুরা জেলা জজ কোর্টের অ্যাডভোকেট ফরিদ হোসেনের বাড়ি ঘেরাও করে পুলিশ অভিযান চালায়। সেখান থেকে জঙ্গি সন্দেহে বাচ্চু, ওবায়দুল, আবুল বাশার, রবিউল, জাহিদুল, আনোয়ার, জাহাঙ্গিরকে গ্রেফতার করে। সেখান থেকে বেশ কিছু জিহাদি বই, বাল্ভ তৈরির ডিভাইস, ২টি পিতলের মুর্তিসহ কয়েকটি ছোট মুর্তি, জাল টাকা তৈরীর সরঞ্জাম উদ্ধার করেছে। এই সময় বাড়ির মালিক  জামায়াত নেতা ফরিদ হোসেনকেও পুলিশ আটক করে। তারা শুক্রবার  ফরিদপুর থেকে উক্ত এলাকায় এসে বাড়িটি ভাড়া নিয়েছিল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here