গুরুত্বপূর্ন তথ্য ‍দিয়েছে যশোরে নব্য জেএমবি সদস্য খাদিজা

0
232

এম আর রকি : আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যর হাতে গ্রেফতারকৃত নব্য জেএমবি সদস্য খাদিজা রিমান্ডে গুরুত্বপূর্ন তথ্য দিয়েছে বলে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা কোতয়ালি মডেল থানার এসআই আবুল বাশার মিয়া জানিয়েছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার ৩ দিনের রিমান্ড শেষে খাদিজাকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।
কোতয়ালি মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক তদন্ত আবুল বাশার মিয়া জানান, গত ৯ অক্টোবর ভোর রাত থেকে যশোর শহরের ঘোপ নওয়াপাড়া রোডস্থ বাইলেন মসজিদের পিছনে একটি বাড়ির দোতলা কক্ষে জঙ্গী আস্তানার অভিযোগে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা ঘিরে ফেলে। পরে ১৫ ঘন্টা অভিযান চালিয়ে উক্ত ভাড়া বাড়ির বাসিন্দা নব্য দক্ষিণালঞ্চলী আঞ্চলিক প্রধান হাদিসুর রহমান সাগর ওরফে মশিউর রহমানের স্ত্রী নব্য জেএমবি’র সদস্য খাদিজা আক্তারকে গ্রেফতার করে। এ সময় খাদিজা আক্তারের তিনটি শিশু উদ্ধার করে। খাদিজা আক্তারের কথা মতো তার গ্রামের বাড়ি পাবনা হতে মা ও বাবাকে নিয়ে আসার পর উক্ত বাড়িতে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী প্রবেশ করার পর খাদিজা আক্তার আত্মসমর্পন করে। খাদিজার বিরুদ্ধে সন্ত্রাস দমন আইনে মামলা দায়ের করেন কোতয়ালি মডেল থানায়। কোতয়ালি মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক ইন্টেজিলেন্স ইউনিটের তোফায়েল আহম্মেদ বাদি হয়ে খাদিজা ও তার পলাতক স্বামী হাদিসুর রহমান সাগর ওরফে মশিউর রহমানের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। ১০ অক্টোবর খাদিজা আক্তারকে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পুলিশ পরিদর্শক আবুল বাশার মিয়া ৭ দিনের রিমান্ডের আবেদন জানিয়ে বুলবুল আহম্মেদের আদালতে সোপর্দ করেন। বিজ্ঞ আদালতের বিচারক ১৯ অক্টোবর রিমান্ডের শুনানীর দিন ধার্য্য করে নব্য জেএমবি’র সদস্য খাদিজা আক্তারকে কারাগারে প্রেরণ করে। ১৯ অক্টোবর রিমান্ডের শুনানীতে আসামী পক্ষের কোন আইনজীবী না থাকায় ও আইনজীবী নিয়োগের ব্যাপারে খাদিজা আক্তারকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে তিনি আইনজীবী নিয়োগের কথা জানালে বিজ্ঞ বিচারক ২৩ অক্টোবর রিমান্ডের শুনানী দিন ধার্য্য করেন। ২৩ অক্টোবর রিমান্ড শুনানী শেষে খাদিজা আক্তারকে ৩ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। রিমান্ডের প্রথম দিনে খাদিজা আক্তার মুখ না খুললেও পরে মুখ খুলেছে। সে তদন্তকারীর কাছে জেএমবি’র ব্যাপারে গুরুত্বপূর্ন তথ্য দিয়েছে। সে পুলিশকে জানিয়েছে,তার স্বামী মশিউর রহমানের কাছে অজ্ঞাতনামা ৪/৫জন আসা যাওয়া করতো। তিনি তাদেরকে দেখলে চিনবে নাম জানেন না। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা আরো জানান,খাদিজা আক্তারের স্বামী হাদিসুর রহমান সাগর ওরফে মশিউর রহমান ও তার সহযোগীদের গ্রেফতারে অব্যাহত অভিযান চালানো হচ্ছে। যে কোন মুহুর্তে মশিউর রহমান গ্রেফতার হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here