‘জঙ্গি’ সুমাইয়াকে জিজ্ঞাসাবাদে ছয় সদস্যের পুলিশি বোর্ড

0
314

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী : রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার বেনীপুরের ‘জঙ্গি বাড়ি’ থেকে আত্মসমর্পণ করা ‘জঙ্গি’ সুমাইয়া খাতুনকে (২৫) রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

রবিবার আদালতে তার রিমান্ড মঞ্জুরের পর ওইদিন বিকেল থেকেই তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা গোদাগাড়ী থানার পরিদর্শক আলতাফ হোসেন এ তথ্য জানিয়েছেন। তিনি বলেন, সুমাইয়াকে জিজ্ঞাসাবাদে ছয় সদস্যের পুলিশি বোর্ড গঠন করা হয়েছে। এই বোর্ডের নেতৃত্বে আছেন জেলা পুলিশের বিশেষ শাখার (ডিএসবি) অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুমিত চৌধুরী।

পুলিশ কর্মকর্তা আলতাফ হোসেন জানান, জিজ্ঞাসাবাদের প্রথম দিনই সুমাইয়া বেশকিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছে। তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে পুলিশ পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণ করছে। তবে তদন্তের স্বার্থে সুমাইয়ার দেওয়া কোনো তথ্য প্রকাশ করতে চাননি তিনি।

সুমাইয়া গোদাগাড়ীর দিয়াড়মানিকচক গ্রামের জহুরুল ইসলামের স্ত্রী। জামায়াতুল মুজাহিদিন বাংলাদেশের (জেএমবি) সদস্য জহুরুলকে গত বছরের ৩১ অক্টোবর গ্রেফতার করা হয়েছে। এরপর থেকে দুই শিশু সন্তানকে নিয়ে সুমাইয়া উপজেলার বেনীপুর গ্রামে তার বাবার বাড়িতে থাকত।

জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে গত বৃহস্পতিবার ভোররাতে বাড়িটিতে অভিযান চালায় পুলিশ। এ সময় জঙ্গি হামলায় ফায়ার সার্ভিসের এক কর্মী নিহত ও পুলিশের চার সদস্য আহত হন। এরপর আত্মঘাতি বোমার বিস্ফোরণে সুমাইয়ার বাবা, মা, ভাই, বোন ও অপর এক বহিরাগত জঙ্গি নিহত হয়। পরে পুলিশের কাছে ধরা দেন সুমাইয়া।

রবিবার সন্ত্রাসবিরোধী আইনে গ্রেফতার দেখিয়ে সুমাইয়াকে আদালতে তোলে পুলিশ। এরপর তার ১৫ দিনের রিমান্ডের আবেদন করা হয়। আদালত তার ১০ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। জঙ্গি বাড়ি থেকে উদ্ধার সুমাইয়ার ৮ বছরের ছেলে তার চাচার হেফাজতে আছে। আর তিন মাসের মেয়ে আছে মায়ের কাছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here