ঝিকরগাছার পল্লীতে প্রতিপক্ষের হামলায় এক যুবলীগ কর্মী আহত

0
202

উত্তম চক্রবর্ত্তী: যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলায় পল্লীতে প্রতিপক্ষের হামলায় এক যুবলীগ কর্মী আহত হয়েছে। এ ব্যাপারে বিজ্ঞ জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট ঝিকরগাছা আদালত যশোরে ৪ জনকে আসামী করে মামলা হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, উপজেলার পানিসারা ইউনিয়নের বর্ণি গ্রামের ফয়েজ বক্সের পুত্র যুবলীগ কর্মী ও স্বর্ণকার পিন্টু রহমানের সাথে বাড়ির পানি বের হওয়াকে কেন্দ্র করে একই গ্রামের তোসাব আলীর ছেলে সাদ্দাম হোসেনের কথা কাটাকাটি হয়।

কথা কাটাকাটির দুই ঘন্টা পরে পিন্টু রহমান তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বাঁকড়া বাজারের মুসলিম জুয়েলার্সে আসার সময় বর্ণি গ্রামের হাসপাতাল মোড়ে পৌছালে সাদ্দাম হোসেনের নেতুত্বে আব্দুর রহমানের ছেলে আলাউদ্দীন ও নাসির উদ্দীন, আলাউদ্দীনের ছেলে আলমগীর কবীর দেশীয় অস্ত্র, রড, দা, লাঠি নিয়ে হামলা করে। তারা তাকে বেদম প্রহার করে এবং মাথায় রড দিয়ে আঘাত করে। অচেতন অবস্থায় পিন্টু রহমানকে ঝিকরগাছা হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়। এসময় পিন্টুর কাছে থাকা ৫ টি সোনার চেইন ও ৫ টি কানের দুল হামলাকারীরা নিয়ে নেয়।

যার মূল্য ১ লক্ষ ৫৩ হাজার টাকা। ঘটনায় বিজ্ঞ জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট ঝিকরগাছা আদালত যশোরে ৪ জনকে আসামী করে মামলা হয়েছে। যার নং-২২২, তারিখ- ২৪/০৭/২০১৭ ইং। আসমীরা হলো, তোসাব আলীর ছেলে সাদ্দাম হোসেন, আব্দুর রহমানের ছেলে আলাউদ্দীন ও নাসিরউদ্দীন এবং আলাউদ্দীনের ছেলে আলমগীর কবীর। আহত যুবলীগ কর্মী পিন্টু রহমানের ভাই আওয়ামী লীগ নেতা রেজাউল ইসলাম জানান, হামলাকারীরা বিএনপি জামায়াতের সমর্থক।

তারা সাবেক উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা কবীর হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত। উপজেলা আওয়ামী লীগের এক নেতার ইন্দনে ইউপি নির্বাচনের পর থেকে এরা মাথাচাড়া দিয়েছে। তাদের দ্বারা গ্রামের অনেক আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী মারপিটের শিকার হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here