তালায় জনগুরুত্বপূর্ন রাস্তা দখল করে মৎস্য ঘের : ভোগান্তির শিকার পথচারীরা

0
490

বি. এম. জুলফিকার রায়হান, তালা : তালার আটারই গ্রামে জনগুরুত্বপূর্ন সরকারি রাস্তা দখল করে মৎস্য ঘের করছে এলাকার বিতর্কীত ঘের ব্যবসায়ী আমজাদ মোড়ল। এতে রাস্তাটির একটি বড় অংশ দখল এবং আরো কিছু অংশ ঘেরের পানিতে ভেঙ্গে যাওয়ায় রাস্তাটিতে চলাচলকালে দূর্ভোগের শিকার হচ্ছে পথচারীরা। রাস্তা দখল করার ঘটনায় এলাকাবাসী বাঁধা দিলে তাদের হুমকি প্রদান করা হয়। এঘটনার প্রতিকার পেতে এলাকার ক্ষুব্ধ পথচরারীরা তালা উপজেলা নির্বাহী অফিসার’র নিকট আবেদন করেছেন।
আটারই গ্রামের গনেশ মজুমদার, খাইরুল ইসলাম, ইয়াছিন মোড়ল, দিবস মজুমদার, আবুল কাশেম, মিজানুর রহমান, আব্দুল বারী ও সহিদুল ইসলাম সহ একাধিক ব্যক্তি ক্ষোভ প্রকাশ করে জানান, মধ্য আটারই মোড়লপাড়া-শেখপাড়া জামে মসজিদের পাশে জনগুরুত্বপূর্ন জাতপুর-তালা কাঁচা রাস্তার পাশে একই গ্রামের মোকছেদ মোড়লের দূর্বৃত্ত ও ভূমিদস্যু ছেলে আমজোদ মোড়ল দীর্ঘ বছর ধরে মৎস্য ঘের করে আসছে। এসময় সে ওই ঘের সংলগ্ন অন্যের জমির অংশ দখল সহ ১নং খাস খতিয়ানের ২২৩৮ দাগের মধ্যে অবস্থিত জনগুরুত্বপূর্ন রাস্তাটির ১৫ থেকে ২০ ফুট জমি দখল করে নেয়। সম্প্রতি সে সরকারি উক্ত কাঁচা রাস্তা কেটে এবং বাকি রাস্তার উপর বেড়ীবাঁধ দিয়ে প্রায় ৫০ ফুট রাস্তার অধিকাংশ জমি দখল করে ঘের নির্মান শুরু করে। এসময় এলাকার লোকজন বাঁধা দিলে তাদের অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ এবং হুমকি প্রদান করা হয়। রাস্তা কেটে ঘের করার কারনে সে রাস্তার একাধিক গাছ কেটে নিয়েছে বলে গ্রামবাসী অভিযোগ করেছেন। এদিকে, রাস্তা দখল করে ঘের করার কারনে বিভিন্ন এলাকার হাজার হাজার মানুষ ও ছোট বড় যানবাহন চলাচলে ভোগান্তির শিকার হচ্ছে। জনগুরুত্বপূর্ন হওয়ায় অতিশিঘ্রই উক্ত রাস্তাটি পিচের রাস্তায় উন্নতিকরন করা হচ্ছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানাগেছে। কিন্তু দূর্বত্ত ঘের ব্যবসায়ী আমজাদ মোড়ল উক্ত রাস্তার প্রায় সম্পূর্ন অংশ দখল করে ঘের করায় রাস্তাটি পিচ করার সময় দূর্ভোগের সৃষ্টি হবে। যে কারনে এলাকার সচেতন মহল হুমকি উপেক্ষা করে প্রতিকার পাবার জন্য তালা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. ফরিদ হোসেন’র নিকট আবেদন করেছেন। এলাকাবাসী অনতিবিলম্বে দূর্বৃত্ত ঘের ব্যভসায়ী আমজাদ মোড়ল এর অবৈধ দখল থেকে সরকারি রাস্তা উদ্ধার করে রাস্তাটিতে পিচ করার জন্য সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here